November 17, 2018

শারীরিক নিগ্রহের কথাও বইতে লিখবেন কঙ্গনা!

kangana-ranaut

বিনোদন ডেস্ক: শুধু পর্দায় নয়, পর্দার বাইরেও তিনি সাহসী, বোল্ড, স্পষ্টবাক৷ নিজের জীবনের কোনও কথা যে লুকিয়ে রাখা তাঁর ধাতে নেই, সে কথাই আরও একবার প্রমাণ করলেন কঙ্গনা রানাওয়াত৷ সম্প্রতি তিনি জানালেন কেরিয়ারের শুরুর দিনে কীভাবে শারীরিক নিগ্রহের শিকার হয়েছেন তিনি৷

সাংবাদিক বরখা দত্তের বইপ্রকাশ অনুষ্ঠানে নিজের কথা শোনাচ্ছিলেন কঙ্গনা৷ আর সেখানেই নিজের অতীত জীবনের এক অন্ধকার অধ্যায় তুলে ধরেন৷ কোনও দ্বিধা না করে, কঙ্গনা জানান, সিনেদুনিয়ার এক ব্যক্তির হাতেই নিগৃহীতা হয়েছেন তিনি৷ মোটে ১৭ বছর বয়স তখন তাঁর৷

কঙ্গনা জানিয়েছিলেন ওই ব্যক্তি ছিলেন তাঁর বাবার বয়সি৷ কী ধরনের নিগ্রহের শিকার হয়েছিলেন কঙ্গনা, তা ইঙ্গিতেই স্পষ্ট৷ তবে শারীরিক নিগ্রহের মাত্রা যে কতখানি ছিল তাও জানিয়েছেন তিনি৷ ওই ব্যক্তির আঘাতে তাঁর মাথা ফেটে গিয়েছিল বলে জানান তিনি৷ জানিয়েছেন, খুব খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে গিয়েছেন তিনি৷ কঠোর, নির্মম সে সময়টায় তাঁকে যেন ফাঁদে ফেলে রাখা হয়েছিল৷

আজ তিনি জাতীয় পুরস্কার জয়ী অভিনেত্রী৷ বলিউডের ‘কুইন’৷ কিন্তু কেরিয়ারের গোড়াতে এরকমই নিগ্রহ সয়ে টিকে থাকতে হয়েছিল তাঁকে৷ সেই অতীত দিনের কথা তাঁর বইতে লিখবেন বলেও জানিয়েছেন কঙ্গনা৷ তাঁর সংগ্রামের কথা, এইসব পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে এসে আলোর মুখ দেখার ইতিবৃত্ত তুলে ধরবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি৷

সেখানে কি এই নিগ্রহের কথাও লিখবেন তিনি? ফাঁস করবেন ওই ব্যক্তির পরিচয়? কঙ্গনা অবশ্য সরাসরি সে কথা জানাননি৷ তবে নিজের অবস্থা সম্পর্কে তিনি জানিয়েছেন, একটা সময় কাউকে দেখে মনে হত, সাহা্য্য করবে৷ কিন্তু কোনওকিছুই ফ্রি ছিল না৷ গেলেই ফাঁদে পড়তে হত৷ সেই ফাঁদ সম্পর্কেই মেয়েদের সচেতন করে তুলতে চান তিনি৷ আশা করা যায়, স্পষ্টবাক কঙ্গনা, নিজের জীবনের কালো অভিজ্ঞতা তুলে ধরে সারা দেশের নারীদের আলো দেখাবেন৷

Related posts