December 11, 2018

৮৬ স্ত্রী রেখে বিদায় নিলেন ইসলাম ধর্মীয় প্রচারক

somtanকমপক্ষে ছিয়াশিজন মহিলাকে বিয়ে করেছেন, নাইজেরিয়ার এমন একজন মুসলিম ধর্মীয় প্রচারক ৯৩ বছর বয়সে মারা গেছেন।
মোহামেদ বেলো আবু বাকের, যিনি বাবা মাসাবা নামেও পরিচিত ছিলেন, তিনি দেশের মধ্যাঞ্চলে নিজের বাড়িতেই শনিবারে মারা যান।
তবে ঠিক কী রোগে ভুগে তার মৃত্যু হয়েছে সেটা প্রকাশ করা হয়নি। রবিবার তার জানাজায় মানুষের ঢল নেমেছিল।
নাইজেরিয়ার ডেইলি ট্রাস্ট সংবাদপত্র বলছে ২০০৮ সালেই বাবা মাসাবা-র অন্তত ৮৬জন স্ত্রী ছিল, আর তখন তিনি ছিলেন সংবাদমাধ্যমের মনোযোগের কেন্দ্রে।
আমি কখনও আমার স্ত্রী-দের খুঁজতে যাই না। ওরাই নিজে থেকে আমার কাছে আসে
বাবা মাসাবা, মোহামেদ বেলো আবুবাকের
ওই খবরের কাগজের মতে, মৃত্যুর সময় তার স্ত্রীর সংখ্যা বেড়ে পৌঁছেছিল ১৩০য়ে। তাদের কেউ কেউ গর্ভবতীও ছিলেন বলে তারা জানাচ্ছে।
২০০৮ সালে বিবিসি-ও রিপোর্ট করেছিল যে মি আবুবাকেরের মোট ১৭০জন ছেলেমেয়ে আছে।
তবে ডেইলি ট্রাস্টের মতে মৃত্যুকালে তিনি ২০৩জন সন্তানকে রেখে গেছেন।
২০০৮ সালে বিবিসি তার কয়েকজন স্ত্রীর সঙ্গে কথাও বলেছিল।
তারা প্রায় সবাই বলেছিলেন, অসুস্থ হয়ে নিরাময়ের আশায় তারা মি আবুবাকেরের কাছে গিয়েছিলেন, আর তিনি তাদের সারিয়েও তুলেছিলেন।
বাবা মাসাবা নিজে বিবিসিকে বলেছিলেন, “আমি কখনও আমার স্ত্রী-দের খুঁজতে যাই না। ওরাই নিজে থেকে আমার কাছে আসে।”
“আমি বরং বলব আল্লাই আমাকে বলেন তাদের বিয়ে করতে, আর আমি শুধু বিয়ে করে তার নির্দেশই পালন করি।”
তার একজন স্ত্রী জানিয়াত মোহামেদ বেলোর সঙ্গে বিবিসি যখন ২০০৮ সালে কথা বলে, তখন বাবা মাসাবার সঙ্গে তিনি কুড়ি বছরের বিবাহিত জীবন কাটিয়ে ফেলেছেন।
তিনি তখন বলেছিলেন তার চেয়ে বয়সে অনেক বড় একজন ব্যক্তিকে বিয়ে করতে তিনি মোটেও রাজি ছিলেন না – কিন্তু বাবা মাসাবা তখন বলেছিলেন সেটা সরাসরি আল্লার নির্দেশ!

Related posts