November 15, 2018

৫ জুন সৌদি বাদশাহর সঙ্গে হাসিনা শীর্ষ বৈঠক

ঢাকাঃ   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ৪ থেকে ৬ জুন সৌদি আরব সফর করবেন। ৫ জুন জেদ্দায় সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের সঙ্গে শীর্ষ বৈঠক করবেন শেখ হাসিনা। সৌদি সরকার ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরের সময় চূড়ান্ত করে বাংলাদেশ সরকারকে জানিয়েছে। এবারের সফরে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো হচ্ছে সৌদির শ্রমবাজার সম্পূর্ণ উন্মুক্ত, বিনিয়োগ ও সন্ত্রাসবাদ দমনে অন্যান্য সহযোগিতা। সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন নায়েফ ও উপ-যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান আল সৌদের সঙ্গেও প্রধানমন্ত্রী বৈঠক করবেন বলে কূটনৈতিক সূত্র জানায়।

গত বছর বাদশাহ সালমান শেখ হাসিনাকে সৌদি সফরের আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণ জানান। ঢাকা ও রিয়াদের কর্মকর্তারা এখন প্রধানমন্ত্রীর সফরসূচি চূড়ান্ত করছেন। একটি সূত্র জানায়, প্রচণ্ড গরমের কারণে সৌদি বাদশাহ ও তার প্রশাসনিক কর্মকর্তারা দুই সপ্তাহ আগে রিয়াদ থেকে জেদ্দা গেছেন। সেখান থেকেই বাদশাহের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সৌদি সরকার ও রাজ পরিবারের কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিও বৈঠক করবেন।

শীর্ষ স্থানীয় সৌদি ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারীরা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করবেন। এ ছাড়া সৌদি প্রবাসী বাংলাদেশিরা প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা দেবেন বলে জানা গেছে। এর আগে ২০০৯ সালে তিনি দ্বিপক্ষীয় সফরে সৌদি আরব গিয়েছিলেন। গত কয়েক বছরে ঢাকা ও রিয়াদের সম্পর্ক বেশ ঘনিষ্ঠ ও শক্তিশালী হয়েছে। দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়েও সফর হয়েছে। সৌদি আরবে প্রায় ২৫ লাখ বাংলাদেশি কর্মী কাজ করছে। সৌদি শ্রম বাজারে আধা দক্ষ ও দক্ষ জনশক্তির চাহিদা রয়েছে। বাংলাদেশ সৌদিতে আরো বেশি হারে জনশক্তি রপ্তানির মাধ্যমে এই সুযোগকে কাজে লাগাতে চায়। সম্প্রতি সন্ত্রাসবিরোধী কার্যক্রমে বাংলাদেশ-সৌদি আরব অংশীদারিত্বও বৃদ্ধি পেয়েছে।

ইত্তফাক

Related posts