September 19, 2018

২৩ বছর পর নেপালের শিরোপা!

290
স্পোর্টস ডেস্কঃ  বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবলের শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে বাহরাইনকে ৩-০ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মত বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ শিরোপা জিতলো নেপাল। আর এতে দেশটির ২৩ বছরের শিরোপা পাওয়ার অপেক্ষারও অবসান ঘটলো।

শুক্রবার বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এই ফাইনাল ম্যাচে প্রথমার্ধের পাঁচ মিনিটেই এগিয়ে যায় নেপাল। নেপালের বিমল ঘারতি মাগারের দেয়া এই গোলেই ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় নেপাল।

প্রথমার্ধে এগিয়ে থাকা নেপাল দ্বিতীয়ার্ধে যেন আরও ক্ষুরধার। মুহুর্মুহু আক্রমণে বারবার বাহরাইনের রক্ষণভাগ কাপিয়ে দেয় নেপাল।

দ্বিতীয়ার্ধের ৩৫ মিনিটে নেপালের সুমন লামা ও বাহরাইনের আহমেদ আলথুয়াইনি হাতাহাতিকে জড়িয়ে পড়ায় দুজনকেই রেফারি লাল কার্ড দেখালে ১০ জনের দলের পরিণত হয় উভয় দল।

দশ জনের দলে পরিণত হওয়ার পর বাহরাইন সীমানায় আরেকটি দারুণ আক্রমণ চালায় নেপাল। আর এই আক্রমণে অঞ্জন বিসতার ক্রস থেকে বিশাল রায় বাহরাইন জালে বল জড়ালে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় নেপাল।

এরপর ম্যাচের একেবারে শেষ সময়ে অর্থ্যাৎ ইনজুরি সময়ে অনুযোগ শ্রেষ্ঠার গোলে ৩-০ তে এগিয়ে যায় নেপাল। ম্যাচের বাকি সময় আর কোনো গোল না হওয়ায় ৩-০ তেই জয় নিশ্চিত হয় নেপালের।

আর এর ফলে নতুন চ্যাম্পিয়ন পেল বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল। পাশাপাশি এটা নেপালের ২৩ বছর পর কোন শিরোপা জয়। তাইতো শিরোপা হাতে নেপালের খেলোয়াড়দের উল্লাসও ছিলো বাঁধভাঙ্গা।

ম্যাচের শেষ দিকে মাঠে এসে উপস্থিত হন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কিছুটা সময় খেলা উপভোগ করেন প্রধানমন্ত্রী। পরে তিনি চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ উভয় দলসহ টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী সবগুলো দলকে অভিনন্দন জানান।

চ্যাম্পিয়ন দল নেপালকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আজকের খেলা অত্যন্ত উপভোগ্য হয়েছে। যারা রানার্সআপ ও চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন তাদের সবাইকে অভিনন্দন। খেলা দেখে ভালো লেগেছে। বিশেষ করে হিমালয়ের দেশ নেপালকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি। তারা ভালো খেলেছে। আর এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে সমগ্র বাংলাদেশে ফুটবল খেলা ছড়িয়ে যাবে, এমনটাই প্রত্যাশা করি।’ এ সময় রানার আপ বাহরাইন দলকেও শুভেচ্ছা জানান তিনি।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts