November 15, 2018

২০ বছরেও পাকা নির্মানের ভাগ্যে মিলেনি!

ঝালকাঠী প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠী জেলার রাজাপুর উপজেলার নারিকেলবাড়ীয়া গ্রামে মোল্লারহাট হতে দক্ষিনে ১ থেকে দেড় কিলোমিটার দূরত্ব রাস্তাটি দীর্ঘ ২০ বছরেও হয়নি সংস্কার কিংবা ইট সলিং বা এলজিইডির পাকা নির্মান কাজ । রাস্তাটি ১৯৮৮ ইং সনে ইউনিয়ন পরিষদের কেয়ার রাস্তা প্রকল্পের অধিনে নির্মিত হয় । রাস্তাটির দক্ষিনে সিমান্তে রয়েছে অত্র এলাকার সুনামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাফরাবাদ আলিম মাদ্রাসা ও কাঠীপাড়া এস ডব্লিউ মাধ্যমিক বিদ্যালয় সহ কাঠীপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ।

ইহাছাড়া দক্ষিনমুখী রয়েছে আদিকাল থেকে অত্র এলাকার হাজিরহাট নামক বাজারটি। বৃষ্টি নামলেই পানি। এটা নতুন কথা নয়। ঝালকাঠীর রাজাপুরের মোল্লারহাট জাফরাবাদ মাদ্রাসায় যাতায়তের রাস্তাটি বৃষ্টি নামলেই পানি জমে থাকে গর্তে পরিনত হয়ে যায় । পানি জমে থাকায় রাস্তাটি প্রচুর কাদা হয়ে যায়। এর কারণে অত্র এলাকার জনসাধারন ও স্কুল মাদ্রাসার ছাত্র ছাত্রীদের চরম দুর্ভোগের মধ্যে পড়েন। ছাত্র ছাত্রীরা ঠিক মত মাদ্রাসা কিংবা স্কুলে যেতে পারেন না,ইহা ছাড়া নিকটতম দু দুটি হাট ও বাজারে ক্রেতা ও বিক্রেতারা ঠিক মত ক্রয় কিংবা বিক্রয় করতে পারেন না।

বর্ষার মৌসুমে এই রাস্তাটি যাতায়াতের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। এলাকাবাসী ও হাট বাজারের ব্যবসায়ীদের দাবি, অন্তত ২০ বছর ধরে জাফরাবাদ আলিম মাদ্রাসার রাস্তা ঠিক করা হয় না।এ বিষয়ে স্থানীয় গন্যমান্য জনাব মোঃ আঃ আউয়াল মোল্লা বলেন, অল্প বৃষ্টির কারণে রাস্তায় কাদা হয় । আর এতে আমাদের অনেক সমস্যা হয়, সমস্যাগুলো হলো কাদার কারণে বাজারে ক্রেতা আসে না, ক্রেতা না আসলে আমাদের বেচা-কেনাও হয় না। তাছাড়া আমাদের ছেলে সন্তান নাতীগন স্কুল ও মাদ্রাসায় যেতে পারে না ।

প্রায় আজ ২০ বছর ধরে আমাদের রাস্তাটিতে সংস্কার কিংবা পাকা নির্মানেরো কোন উদ্যোগ নেওয়া হয় নাই । ৮নং ওয়ার্ড সাবেক ইউপি সদস্য জনাব মোঃ আবুল কালাম মোল্লা বলেন, বাজারে ঠিক মত লোকজনই আসতে পারে না। কাদার জন্য বাজারে কাস্টমার কম হয়।

আমাদের দোকানদারী করা খুবই সমস্যা হয়ে উঠে।তাছাড়া জাফরাবাদ মাদ্রাসায় বর্ষার মৌসুমে ছাত্র ছাত্রী যেতে চায় না । বৃষ্টির পড়লেই রাস্তার বেহাল দশা হয়ে পড়ে। তিনি আরো বলেন, প্রায় ২০ বছর ধরে মোল্লারহাট হতে জাফরাবাদ রাস্তাটি ঠিক করা হয়নি।এ বিষয়ে ২নং শুক্তাগড় ইউনিয়ন চেয়ারম্যান জনাব মজিবুল হক মৃধা বলেন, অল্প বৃষ্টিতেই রাস্তা কাদা হয়ে যায়। রাস্তায় কাদা থাকলে তো মানুষ চলাচল করতে কস্টকর । তাছাড়া রাস্তার একপ্রান্তে জাফরাবাদ আলিম মাদ্রাসা রয়েছে বর্ষার মৌসুমে ছাত্র ছাত্রীদের চলাচল খুবই অসাধ্য ব্যাপার । আমি নিজেও এই মাদ্রাসার নির্বাহী কমিটির সভাপতি ।

রাস্তাটি পাকা করন করার অত্যান্ত জরুরী কিন্তু আমাদের ইউনিয়ন পরিষদে এক বা দেড় কিলোমিটার পাকা রাস্তা করার মত কোন বাজেট দেয় না, এটি একমাত্র এলজিইডি করতে পারবে । আমি জোর সুপারিশ করি রাস্তাটি পাকা করন করার ব্যাপারে এবং আপনাদের সহযোগিতা নিয়ে এলজিইডি দপ্তরে জানাবো ।

Related posts