September 20, 2018

২০ দলীয় জোটের সঙ্গে খালেদার বৈঠক!

২০ দলীয় জোটের শরিক দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া

স্টাফ রিপোর্টারঃ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া পৌর নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে দলের শীর্ষ নেতাদের মতামত নেওয়ার পর ২০ দলীয় জোটের শরিক দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন।

বৃহস্পতিবার রাত ৯টায় রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এই বৈঠক শুরু হয়েছে।

বৈঠকে ২০ দলীয় জোটের নেতাদের মধ্যে জামায়াতে ইসলামীর আবদুল হালিম, বিজেপির আন্দালিব রহমান পার্থ, এলডিপির রেদোয়ান আহমেদ, জাগপার শফিউল আলম প্রধান, এনপিপির ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, লেবার পার্টির মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, এনডিপির খন্দকার গোলাম মোর্তজা, বাংলাদেশ ন্যাপের জেবেল রহমান গানি, ন্যাপ ভাসানীর আজহারুল ইসলাম, মুসলীম লীগের শেখ জুলফিকুর চৌধুরী বুলবুল, পিপলস লীগের সৈয়দ মাহবুব হোসেন, জমিয়তে উলামে ইসলামের মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস, সাম্যবাদী দলের সাঈদ আহমেদ, ডিএলের সাইফুদ্দিন আহমেদ মনি, ইসলামিক পার্টির আবুল কাশেম, কল্যাণ পার্টির এম এম আমিনুর রহমান উপস্থিত আছেন।

এ ছাড়া বিএনপি নেতাদের মধ্যে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. ওসমান ফারুক এবং আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন বৈঠকে আছেন।

এর আগে বুধবার রাতে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্যসহ শীর্ষ নেতাদের নিয়ে বৈঠক করেন খালেদা জিয়া। দুই ঘণ্টাব্যাপী ওই বৈঠকে দলটির নেতারা দলীয় প্রতীকে পৌর নির্বাচনে অংশ নেওয়া-না-নেওয়া নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে তাদের যুক্তি তুলে ধরেছেন। এখন শরিক দলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠকের পর দ্রুতই এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাবেন বিএনপি প্রধান।

দেশের ২৩৪ পৌরসভায় ৩০ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণের জন্য মঙ্গলবার তফসিল ঘোষণা করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ।

সিইসি জানান, আগ্রহী প্রার্থীরা ৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবেন। মনোনয়নপত্র বাছাই চলবে ৫ ও ৬ ডিসেম্বর। বৈধ প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ১৩ ডিসেম্বর। ভোট গ্রহণ হবে ৩০ ডিসেম্বর।

এই প্রথম দলীয় প্রতীকে পৌরসভায় নির্বাচন হচ্ছে। এক্ষেত্রে মেয়র পদে দলীয় মনোনয়নের সুযোগ রাখা হলেও কাউন্সিলর পদে স্বতন্ত্রভাবে আগের নিয়মে নির্বাচন হবে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts