September 22, 2018

১২ বছরের সর্বনিম্নে রয়েছে বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম !

জ্বালানি তেলের দরপতন অব্যাহত থাকায় আন্তর্জাতিক বাজারে অস্থিরতা বিরাজ করছে। শুক্রবার পণ্যটির দাম লিটারে ১৫ টাকার নিচে নামে। ফলে টানা তিন সপ্তাহ পণ্যটির দাম কমল।
আরব নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, স্থানীয় সময় শুক্রবার যুক্তরাষ্ট্রে নিউইয়র্কের বাজারে পণ্যটির দাম আগের দিনের চেয়ে এক দশমিক ৭৪ শতাংশ কমে ২৯ ডলার ৪৬ সেন্ট লেনদেন হয়। আর একই দিন লন্ডনে আন্তর্জাতিক মূল্যসূচকে ব্রেন্ট ক্রুডের দাম এক দশমিক ৩১ শতাংশ কমে লেনদেন হয় ২৯ ডলার ৫৭ সেন্ট।

২০১৬ সালের শুরু থেকেই তেলের দামে প্রতন-প্রবণতা রয়েছে। বর্তমানে জ্বালানি তেলের দাম ১২ বছরের সর্বনিম্নে রয়েছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, ইরান নতুন করে উৎপাদন ও সরবরাহ বাড়ানোয় তেলের বাজারে চাপে পড়েছে।

ব্লমিবার্গের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ডিজেলের দাম ২০০৪ সালের পর এখন সর্বনিম্ন। আর পেট্রলের দাম ২০০৮ সালের পর এখন সবচেয়ে কম।

নিউইয়র্কের স্থানীয় সময় শুক্রবার অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ২৯ ডলার ৪২ সেন্ট বা দুই হাজার ৩৫৬ টাকায় নামে। অর্থাৎ প্রতি লিটারের দাম ১৪ টাকা ৮০ পয়সা। এটি ২০০৩ সালের পর পণ্যটির সর্বনিম্ন দাম।

নিউইয়র্কভিত্তিক বিনিয়োগ প্রতিষ্ঠান এগেইন ক্যাপিটাল এলএলসির অংশীদার জন কিডাফ বলেন, ইরানের তেল রপ্তানি পরিকল্পনার কারণে পণ্যটির দাম তলানিতে নামছে।
প্রতিবেদনে বলা হয়, তেল রপ্তানিকারক দেশগুলোর সংগঠন ওপেকের সিদ্ধান্তের কারণে ২০১৫ সালে পণ্যটির বার্ষিক দরপতন হয়েছে। এ কারণে উৎপাদক প্রতিষ্ঠানগুলোর ব্যাপক আর্থিক ক্ষতি হয়েছে। পাশাপাশি এসব প্রতিষ্ঠানের চার হাজারেরও বেশি কর্মী ছাঁটাই করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার ওপেকের দেশগুলোয় জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ২৫ ডলারে নামে। এ হিসাবে লিটারপ্রতি তেলের দাম দাঁড়ায় ১২ টাকা ৫৭ পয়সা।

জ্বালানি তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ২০ ডলারে নামবে বলে এর আগে পূর্বাভাস দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের বহুজাতিক বিনিয়োগ ব্যাংক গোল্ডম্যান স্যাকস ও হংকংভিত্তিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান ক্রেডিট লিউন্যাইস সিকিউরিটিজ এশিয়া (সিএলএসএ)। এ হিসাবে পণ্যটির দাম লিটারপ্রতি ১০টাকা হওয়ার কথা।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/মেহেদি/ডেরি

Related posts