September 21, 2018

হ্যাইজ্যাকারের সঙ্গে সেলফি! তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া

31 Mar, 2016, লন্ডন: বিমান ছিনতাইয়ের ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তির সঙ্গে সেলফি তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যাপকভাবে আলোড়ন তৈরি করেছেন এক ব্রিটিশ বিমানযাত্রী।

বেন ইন্নিস নামের ওই তরুণ বলছেন, তিনি চেয়েছিলেন ছিনতাইকারীর শরীরে যে সুইসাইড ভেস্ট বা আত্মঘাতী ডিভাইস বাঁধা ছিল তার আরও স্পষ্ট ছবি তোলার উদ্দেশ্যে তিনি ওই ছবি তুলতে আগ্রহী হয়েছিলেন। তাঁর আরও দাবি, তিনি প্রতিকূল পরিবেশেও উৎফুল্ল থাকার চেষ্টা করেছেন। ওই ছিনতাইকারী আত্মঘাতী বোমা হামলার হুমকি দিয়ে আলেকজান্দ্রিয়া থেকে কায়রোর উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া বিমানটিকে সাইপ্রাসে অবতরণ করতে বাধ্য করেন।

পরে অবশ্য অভিযুক্ত সেইফ এলদিন মুস্তাফাকে তাকে আটক করার পর দেখা যায়, আত্মঘাতীর বোমার বিষয়টি ছিল বানোয়াট। যদিও ছবিটি তুলে দিয়েছিলেন একজন বিমান কর্মী, তবে এই ছবিটিকেই নিজের এ যাবতকালের “শ্রেষ্ঠ সেলফি” বলে মন্তব্য করেছেন বেন ইন্নিস।

ওই আলোকচিত্রে দেখা যায় ছিনতাইকারীর সঙ্গে বেশ হাশিখুশী মুখে দাঁড়িয়ে আছেন বিমানের এই যাত্রী। পরে এটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায় এবং ব্যাপকভাবে শেয়ার হয়।

এদিকে বিমান ছিনতাইয়ের ঘটনায় সেইফ এলদিন মুস্তাফাকে আদালতে হাজির করা হয়েছে।
সাইপ্রাসের কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে ওই অভিযুক্তকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলে জানিয়েছে। যদিও ছিনতাইয়ের কারণ এখনও স্পষ্ট নয় তবে প্রেসিডেন্ট নিকোস আনাস্তাসিয়াদেস জানিয়েছেন, এটি জঙ্গি নাশকতার কোনও ঘটনা নয়।

মিশরের এমএস ১৮১ ফ্লাইটটি ৫৬ জন আরোহী দিয়ে আলেকজান্দ্রিয়া থেকে কায়রো যাচ্ছিল। পথে সেইফ এলদিন মুস্তাফা গন্তব্য বদলে সাইপ্রাসে অবতরণ করতে বাধ্য করেন।

Related posts