November 18, 2018

হোয়াটমোর স্বস্তিতে নেপথ্যে কি মুস্তাফিজ-মুশফিক?

161স্পোর্টস ডেস্কঃ   চার ম্যাচের টি২০ সিরিজের প্রথম দুটি জিতে এরই মধ্যে ২-০তে এগিয়ে গেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। তৃতীয় টি২০ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২০ জানুয়ারী খুলনায়। এশিয়া কাপ ও টি২০ বিশ্বকাপের আগে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই সিরিজটি টাইগারদের জন্য পরীক্ষার-নিরীক্ষার সিরিজ।

দাপটের সঙ্গে সিরিজে এগিয়ে গেলেও শেষ দুটি ম্যাচে বাংলাদেশ দলে বেশ কয়েকটা পরিবর্তন আনা হয়েছে। ইনজুরির কারণে দলে নেই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। বিশ্রাম দেয়া হয়েছে দুই পেসার মুস্তাফিজুর রহমান ও আল-আমিন হোসেনকে। এই তিনজনের অনুপস্থিতি সিরিজের বাকি দুটি ম্যাচে জয়ের জন্য বড় সুযোগ বলে মনে করছেন জিম্বাবুয়ের কোচ ডেভ হোয়াটমোর। প্রথম দুটি ম্যাচ হারলেও পরের দুটি ম্যাচ জিম্বাবুয়ে দল জিততে পারে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন বাংলাদেশের এই সাবেক কোচ।

গত বছরের নভেম্বরে বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের সব ম্যাচ হারলেও দুই ম্যাচের টি২০ সিরিজ (১-১) ড্র করে দেশে ফিরেছিল এলটন চিগুম্বুরারা। তবে এবার চার ম্যাচের টি২০ সিরিজের প্রথম দুটিতেই হেরেছে তারা। বাকি দুই ম্যাচে ঘুড়ে দাড়াতে না পারলে সিরিজ হারের সঙ্গে কপালে জুটতে পারে হোয়াইটওয়াশও। আর সে কারণেই বেশ সিরিয়াস সফরকারী শিবির। সোমবার সকাল সাড়ে দশটা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত একটানা খুলনার আবু নাসের স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেছে জিম্বাবুয়ে দল। পরে অনুশীলন শেষে সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হন হোয়াটমোর।

বাংলাদেশ দলের বেশ কয়েকজন নিয়মিত ক্রিকেটার থাকছেন না পরের দুটি ম্যাচে। এটিকে বড় সুযোগ মনে করছেন জিম্বাবুয়ের কোচ হোয়াটমোর। এ বিষয়ে অতিথি দলের কোচ বলেন, ‘মুশফিক বাংলাদেশের সেরা খেলোয়াড়দের একজন, মুস্তাফিজও ভালো করছে। এদের দলে না থাকাটা আমাদের জন্য সেরা সুযোগ। তাই আমরা এ সুযোগটাকে ভালোভাবেই কাজে লাগাতে চাই।’

প্রথম দুটি টি২০ ম্যাচে হেরে যাওয়ায় শেষ দুই ম্যাচের জন্য বড় ধরনের পরিকল্পনা করছেন জিম্বাবুয়ে দলের কোচ ডেভ হোয়াটমোর। তাই বলে আলাদা কোনো কিছু উল্লেখ না করে এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘শেষ দুটি ম্যাচের জন্য আমাদের বড় ধরনের পরিকল্পনা রয়েছে। যেগুলো ঠিক থাকলে আমরা জিততে পারব।’

যদিও ২-০ তে পিছিয়ে থাকার পর সিরিজে ফেরাটা চ্যালেঞ্জের। সেই চ্যালেঞ্জটা জিম্বাবুয়ে দলের আছে জানিয়ে অতিথি দলে কোচ বলেন, ‘প্রথম দুটি ম্যাচ হেরেছি তো কি হয়েছে? পরের দুটি ম্যাচ তো আমরা জিততে পারি। এর আগে সিরিজে পিছিয়ে থেকেও সিরিজ জয়ের রেকর্ড আছে জিম্বাবুয়ের। এখনো সিরিজে ফেরার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী আমরা। প্রথম দুটি ম্যাচে যেসব ভুল হয়েছে, সেগুলো আমরা চিহ্নিত করেছি। তাই সেগুলো নিয়ে কাজও করেছি। সিরিজের শেষ দুটি ম্যাচে এই ভুলগুলো যেন না হয়, সেই বিষয়গুলো নিয়ে আমরা কাজ করছি।’

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts