November 13, 2018

হেরে গেল তামিমের পেশোয়ার

126
স্পোর্টস ডেস্কঃ  তামিমের ব্যাট জ্বলে না উঠলে যেন পেশোয়ার জালমির যেন রক্ষা নেই। প্রথম দুই ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করেছিলেন তামিম। তাই সেই দুই ম্যাচে জিতেছে পেশোয়ার। ইসলামাবাদ ইউনাইটেডের বিপক্ষে ম্যাচসেরাও হয়েছেন বাংলাদেশের এই মারকুটে ব্যাটসম্যান। রোববার রাতে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটর্সের বিপক্ষে জ্বলে উঠতে পারেননি তামিম। তাই প্রথম হারের মুখ দেখতে হয়েছে দলটিকে। আর টানা তিন জয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষেই আছে কোয়েটা। পেশোয়ার শুরুতে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ১৩৫ রান করে। জবাবে এক বল বাকি থাকতেই তিন উইকেট হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছে কোয়েটা।

দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় কোয়েটা। ব্যাট হাতে নেমে পেশোয়ার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায়। তাই সাত উইকেটে ১৩৫ রানেই শেষ হয় পেশোয়ারের ইনিংস। আগের দুই ম্যাচের হাফ সেঞ্চুরিয়ান বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবাল করেন ১৪ রান। ১৯ বল খেলে একটি চারের মারে এ রান করেন তিনি। এরপর মোহাম্মদ নওয়াজের বলে মোহাম্মদ নবীর হাতে ক্যাচ তুলে দেন তামিম।

পেশোয়ারের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ড্যারেন স্যামি ছাড়া আর কেউই উল্লেখযোগ্য স্কোর গড়তে পারেননি। স্যামি ৩১ বল থেকে একটি চার ও চারটি ছক্কার মারে ৪৮ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন। এছাড়া শহীদ ইউসুফ ২১ ও ডেভিড মালান করেন ১৮ রান। কোয়েটার মোহাম্মদ নেওয়াজ তিন উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা হন। আর ওমর গুল দুটি উইকেট নেন।

জবাব দিতে নেমে কোয়েটাকেও অবশ্য বেশ লড়তে হয়েছে। শেষ পর্যন্ত সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দলটি জয়ের মুখ দেখতে সক্ষম হয়। কেভিন পিটারসেন ২৯ বল থেকে ৩৫ রান করেন। এছাড়া শরফরাজ আহমেদ করেন ২১ রান। পেশোয়ারের শহীদ আফ্রিদি ও ওয়াহাব রিয়াজ দুটি কর উইকেট নেন।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts