September 23, 2018

‘হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গাতে জামায়াতের হাত ছিল’

Captureএশিয়া ::ভারতের পশ্চিমবঙ্গে সম্প্রতি দাঙ্গা বাঁধানোর চেষ্টার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি প্রতিবেশী বাংলাদেশের জামায়াতে ইসলামীর লোকজনকে দায়ী করেছেন।

মমতা ব্যানার্জি অভিযোগ করেছেন, বসিরহাট-বাদুরিয়াতে সাম্প্রতিক হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গাতে বাংলাদেশের জামায়াতের হাত ছিল।

তিনি বলেন, সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফই সাতক্ষীরা সীমান্ত দিয়ে জামাতের লোকদেরকে রাজ্যে ঢুকতে দিয়েছে।

‘কি করে সাতক্ষীরা দিয়ে লোক ঢুকলো? দাঙ্গা ঘটানোর চেষ্টা হয়েছিল। এখানকার লোকজন ভালো বলে আমরা করতে দিইনি। কারা খুলে দিয়েছিল সব কাগজপত্র আমাদের কাছে আছে’ – বলেন মমতা।

ভারতের হিন্দুত্ববাদী ক্ষমতাসীন দল বিজেপি অভিযোগ করে থাকে, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিই বাংলাদেশের জামায়াতে ইসলামী বা নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জেএমবিকে পশ্চিমবঙ্গে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়ে আসছেন।

তবে মমতা ব্যানার্জির এই নতুন অভিযোগে বিজেপিও বিস্মিত।

কেন পশ্চিমবঙ্গ সরকার রাজ্যে দাঙ্গার জন্য হঠাৎ জামায়াতের দিকে আঙুল তুলছে? পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষএর জবাবে বলেন, “ঘটনা সত্যি হলে তাগে মমতা ব্যানার্জির কেন্দ্রীয় সরকারকে জানানো উচিত ছিল। উনি চালাকি করে দোষটাকে অন্যের ঘাড়ে চাপাতে চাইছেন।”

সূত্র: বিবিসি।

Related posts