November 21, 2018

হলো না শ্রদ্ধা জানানো; একটি ফুল কেরে নিল আখিঁর প্রাণ!

616
আবুল খায়ের,ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানানো হলো না, অবশেষে একটি ফুলের জন্য আত্মহুতি দিলো কিশোর বয়সের স্কুল পড়–য়া ছাত্রী আখিঁ আক্তার। তার শোকে মূর্হ্যমান একটি গ্রাম।

সত্তর বয়সী গ্রামের পশিরউদ্দিন অভিযোগ করে বলেন মাতৃভাষার জন্য যাঁরা জীবন দিয়েছে তাদের শ্রদ্ধা জানাতে চেয়েছিলো আখিঁ। কিন্তু গ্রামের মরিয়ম বেগমের কারণে তার সেই ইচ্ছে পুরন হয়নি। এই দুঃখ নিয়ে সবাইকে কাঁদিয়ে চলে গেল সে না-ফেরার দেশে। অভিমানী আখিঁ ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ভগদগাজী উচ্চ-বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী।স্কুলের পাশে কাশিডাঙ্গা গ্রামে তার বাড়ি। গ্রামের কাবুল ইসলামের সে একমাত্র কন্যা সন্তান।

গ্রামবাসী ও পুলিশ জানায়, স্থাণীয় চাতাল ব্যবসায়ী নাসিরুল ইসলামের বাড়ির বাগান থেকে একটি ফুল ছেড়ায় আখিঁ গাল মন্দ শোনে। ঐ ব্যবসায়ীর স্ত্রী মরিয়ম বেগম তাকে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ  করে। এই দুঃখে শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাত ৯-১০ টায় বাবা মার অগোচরে সে নিজ বাড়িতে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে। আখিঁর মা লিলি বেগম জানান তার মেয়ে শহীদ মিনারে যাওয়ার জন্য ফুল সংগ্রহ করে। কিন্তু আর যেতে পারেনি একমাত্র বুকের ধন আখি। লিলি বেগমের দুঃখ একটি ফুলের জন্য মেয়েকে হারাতে হলো। তবে অভিযুক্ত মরিয়ম বেগম গাল দেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন। তিনি বলেন তাকে নাম ধরে বকাবকি করা হয়নি।

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানা ও.সি মশিউর রহমান বলেন ময়না তদন্তের রির্পোট পাওয়ার পর পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে একটি অপমৃত্যুর মামলা রেকড করা হয়েছে বলে জানান ঐ কর্মকর্তা।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts