September 26, 2018

হদিস মিলল ভারতীয় সেনা চান্দুর! ফিরতে কি পারবেন?

14 Oct, 2016, নাজমুল হোসেনঃঃ ভারত উড়ি হামলার ১১ দিন পর পাকিস্তান সীমান্তে প্রবেশ করে ‘অপারেশন সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ নামক একটি অভিযান সম্পন্ন করে । পাকিস্তানের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, বুধবার রাতে নিয়ন্ত্রণরেখায় রাতভর চলা গুলিবর্ষণের মধ্যে দু’টি সেক্টরে পাকিস্তানি সেনার গুলিতে ১৪ জন ভারতীয় সেনা নিহত হয়েছে ও এক ভারতীয় সেনা সদস্যকে জীবিত আটক করা হয়েছে।

ভারতের পক্ষ থেকে অবশ্য জওয়ানদের মৃত্যু নিয়ে পাকিস্তানের দাবি নাকচ করে দিয়ে বলেছে, বুধবার রাতে নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে হামলা চালানো সব সেনা জওয়ান নিরাপদে ফিরে এসেছে বলে জানানো হয়েছে। এতে দুজন পাকিস্তানী সেনা ও অন্তত ৪০ জন জঙ্গি নিহত হয়।

এক ভারতীয় সেনা সদস্য আটক বিষয়ে ভারতীয় কর্মকর্তারা বলছেন, পাকিস্তানে সার্জিক্যাল অপারেশনে অংশ নেননি সেই সেনা। সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের একদিন পরের ঘটনা এটি। ৩৭ নম্বর রাষ্ট্রীয় রাইফেলের সেনা ভুল করে কাশ্মিরের নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে যান। সেই সময়ে নিয়ন্ত্রণরেখায় টহল দিচ্ছিলেন তিনি। তার হাতেও ছিল অস্ত্র। পুঞ্চ সেক্টর থেকে ভুল করে পাক সীমানায় চলে গিয়েছিলেন তিনি। সে যখন নিয়ন্ত্রণরেখা পার হন তারপরেই তিনি উধাও হয়ে যান। এরপরে কেউই আর হদিশ পাননি তাঁর।

এর পর পরই তাঁকে ফেরত দেয়ার বিষয়ে ইসলামাবাদকে জানানো হয়। পাঠানো হয় চিঠি। কিন্তু, ভারতের চিঠির উত্তর দেয়নি পাকিস্থান। বিষয়টি এড়িয়ে যায় ইসলামাবাদ।

ফেরত দেয়ার বিষয়ে পাকিস্তান নীরব থাকলেও তাঁর পরিচয় প্রকাশ করেছে পাকিস্তানি সেনার ডিজিএমও। আটক সে ভারতীয় সেনার পরিচয় প্রকাশ করেছে দৈনিক ডন এর একটি প্রতিবেদনে।

নাম: চান্দু বাবুলাল চৌহান

পিতার নাম: বাশান চৌহান

বয়স: ২২ বছর

ধর্ম: হিন্দু

রাজ্য: মহারাষ্ট্র

ইসলামাবাদেই রয়েছেন তিনি। তাঁকে গ্রেফতার করে পাকিস্তানের পশ্চিম মানকোটের ঝান্দ্রুত নিয়ে বর্তমানে নিকালের সেনা হেডকোয়ার্টারেই চান্দু চৌহান রয়েছেন বলে জানা যাচ্ছে l

আর এরপরই চান্দু চৌহানকে সরকারিভাবে ফিরিয়ে আনার কথা জানিয়েছে ভারত। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং আজ (শুক্রবার) বলেন, ভারতীয় জওয়ানকে ফিরিয়ে আনার সব রকম চেষ্টা চালানো হচ্ছে l যেভাবেই হোক চান্দু চৌহানকে ফিরিয়ে আনা হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন রাজনাথ সিং। বিষয়টি নিয়ে ইতিমধ্যেই ইসলামাবাদের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রাজনাথ সিং।

কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মনোহর পরিক্র বলেন, চান্দু চৌহানকে ফিরিয়ে আনতে ভারত সব রকমের চেষ্টা চালাচ্ছে l যে করেই হোক, চান্দুকে ভারতে ফিরিয়ে না হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তিনি l

পাকিস্তানে আটক ২২ বছর বয়সী চান্দু ভারতের সেনাবাহিনীর বিশেষায়িত বাহিনী ‘রাষ্ট্রীয় রাইফেলসের’ ৩৭ নম্বর সেক্টরের সদস্য। মহারাষ্ট্রের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় জেলা ডুলের বরবিহির শহরে তাঁর বাড়ি। তার ভাই ভূষণ বাবুলাল চৌহান গুজরাটের নবম মারাঠা লাইট ইনফেন্ট্রিতে (অগ্রসেনা)কর্মরত আছেন।

এদিকে, আটকের খবর শুনে অসুস্থ হয়ে তার দাদি মারা গেছেন। চান্দুর দাদির নাম লিলা চিন্দা পাতিল। গত শুক্রবার সকালে মহারাষ্ট্রের বাড়িতে মারা যান তিনি।

উল্লেখ্য, নিয়ম অনুসারে কোনও সেনা বা জওয়ান সীমান্ত অতিক্রম করে অন্যের এলাকায় প্রবেশ করলে দু’দেশের সেনা ফ্ল্যাগ মিটিংয়ে বসে। বন্দি সেনাকে তাঁর নিজের দেশে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। প্রয়োজনে দুই দেশের আর্মির DGMO হস্তক্ষেপ করতে পারেন।

এর আগেও এভাবেই কাজ করে এসেছে ভারত ও পাকিস্তান সেনা। ২০১১ সালে ভারতীয় হেলিকপ্টার সহ ৪ সেনা পাকিস্তানে ঢুকে পড়েছিল। সেনা ও হেলিকপ্টার নিরাপদে ফিরিয়ে দিয়েছিল পাকিস্তান। আবার ২০১২ সালে এপারে চলে আসা এক পাকিস্তানি সেনাকেও ফিরিয়ে দিয়েছিল ভারত।

Related posts