September 23, 2018

হত্যা মামলায় চাঁদপুরে বিএনপি-জামাতের ১৩ নেতাকর্মী কারগারে

01এ কে আজাদ, চাঁদপুর : সরকার বিরোধী আন্দোলনে বিএনপি নেতা কর্মীদের সাথে পুলিশ ও আওয়ামী লীগের ত্রি-মুখী সংঘর্ষে আরিফ, জাহাঙ্গীর ও বাবুল নামের তিন ব্যাক্তির মৃত্যুর ঘটনায় উপজেলা বিএনপির ১৩ নেতাকর্মী জেল হাজতে।

যানাজায়,২০১৩ সালের ১০ অক্টোবর সরকার বিরোধী আন্দোলনে বিএনপির নেতা কর্মীদের সাথে পুলিশ ও আওয়ামী লীগের ত্রি-মুখী সংঘর্ষে আরিফ, জাহাঙ্গীর ও বাবুলের মৃত্যুর ঘটনায় ওই সময় ফরিদগঞ্জ থানার এস আই (উপ-পরিদর্শক) সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে ৫০ জনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। যার নং জিআর ২৫০/১৩।

রবিবার দুপুরে উপজেলা  বিএনপি-জামাতসহ  অংঙ্গসংগঠনের ১৩ নেতাকর্মীরা ওই মামলায় চাঁদপুর ফরিদগঞ্জ কোর্টে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে বিচারক কফিল উদ্দিন তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

আসামীরা হলেন : ফরিদগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মজিবুর রহমান দুলাল, উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক নাছির উদ্দিন পাটওয়ারী, পৌর যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক নাজিম উদ্দিন, বিএনপি ও জামাত নেতাদের মধ্যে সোহেল, মামুন, মানিক পাটওয়ারী, আবু তাহের, মাও. মহিব উল্লাহ, আব্দুল মজুমদার, জামাই ফারুক, মাসুদ, হাফেজ ফারুক, নাজিম ভূঁইয়া।

মামলার এজহার সূত্রে জানা যায়, ২০১৩ সালের ১০ অক্টোবর ১৮ দলীয় ঐক্য জোটের বিএনপি জামাত শিবির এর ২ হাজার থেকে আড়াই হাজার নেতাকর্মী মিলিত হইয়া রায়পুর রোডের ওনআ চত্ত্বর হইতে মিছিল বের করে পৌরসভাধীন প্রানী সম্পদ কার্যালয়ের সামনে উপস্থিত হয়। এ সময় আন্দোলন কারী নেতাকর্মীরা রামদা, চাপাতি, চায়নিজ কুড়াল, বোতল, আগ্নেয়াস্ত্র ও ইটপাটকেল নিয়ে পুলিশের দিকে নিক্ষেপ করে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শাহেদুল হকের নের্তৃত্বে পুলিশ, ১১টি টিয়ারসেল, ২৪২ রাউন্ড শর্টগান কাতুজ, ২৯ রাউন্ড চায়না শর্টগান স্লিপ নিক্ষেপ করে

Related posts