February 23, 2019

হতাশায় বেগুন চাষী, ক্রেতাদের স্বস্তির হাসি

ZAKIR PHOTO

তোফায়েল হোসেন জাকির, গাইবান্ধা থেকে ॥ গাইবান্ধা  জেলার প্রতিটি এলাকায় বেগুনের বাজারে দরপতন ঘটায় চরম হতাশায় ভুগছেন চাষীরা। এদিকে বেগুনের দাম কম হওয়া ক্রেতা সাধারণের মূখে ফুটেছে হাসির ঝিলিক।

গাইবান্ধা জেলার বিভিন্ন হাট-বাজার ঘুরে দেখা গেছে, মণ প্রতি বেগুন বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৬০ টাকা দরে। চাষী মোকলেচার রহমান বলেন, ১ মণ বেগুন ৬০ টাকাা দরে বিক্রি দেড় কেজি করলা কিনলাম ৬০ টাকা দিয়ে। তিনি আরো জানান, বেগুন চাষাবাদ করতে বিঘা (৩৩ শতক) প্রতি খরচ হয় ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা। বর্তমানে বেগুনের বাজার দরপতনের কারণে বিঘা প্রতি ৪/৫ হাজার টাকাও বিক্রি করা সম্ভব হচ্ছে না। বিশেষ করে বর্গা চাষীরা মহা বিপাকে পড়েছে বলে জানা গেছে।

কৃষক ইয়াছিন আলী জানান, এবার বেগুনের বাম্পার ফলন হয়েছে তবে সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন বিভাগীয় শহরে বেগুন রফতানি করতে না পারায় বাজার মূল্য ধস নেমেছে। স্থানীয় হাট-বাজারে বিক্রি করে হাজার হাজার টাকার লোকশানের হিসাব গুণতে হচ্ছে।

কথা হয় বেগুন ক্রেতা আব্দুল হামিদ মিয়ার সঙ্গে। তিনি হাস্যেজ্জ্বল মুখে বলেন, সম্প্রতি প্রতি কেজি বেগুন ২টাকা দামে কিনতে অনেকটাই স্বস্তি পেয়েছি। এভাবেই সকল সবজির দাম কম হলে খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ প্রত্যাশা মূলক তরকারী খেতে পাবে।

কৃষি অফিসরা (অতিরিক্ত) জোবায়দুল রহমান জানান, লক্ষ্যমাত্রা কৃষকের উৎপাদিত বেগুন দেশের বিভিন্ন স্থানে রফতানি করতে না পারায় এবং স্থানীয় চাহিদার চেয়ে আমদানি বেশি হওয়ায় বেগুনের মূল্য হ্রাস পেয়েছে।

Related posts