November 20, 2018

হঠাৎ বিয়ে

88

নাদিয়ার মা ও নাঈমের পিতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহপাঠী ছিলেন। দীর্ঘদিন পর দুজনের দেখা হলে আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত হয় দুই পরিবারের মধ্যে একটি সম্পর্ক স্থাপনের। আর এদিকে গত এক বছর ধরে প্রেমের জোয়ারে ভাসছিলেন নাদিয়া-নাঈম। দুটি বিষয়কে বিবেচনায় নিয়েই পারিবারিকভাবে অনেকটা হঠাৎ করে গেল বৃহস্পতিবার নাঈম ও নাদিয়ার বিয়ে সম্পন্ন হয়।

বিয়ের পরদিন শুক্রবার রাতে রাজধানীর গুলশান ক্লাবে বেশ আয়োজনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয় তাদের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা। এতে উভয় পরিবারের আত্মীয়স্বজন, নাদিয়া ও নাঈমের বন্ধু-বান্ধবসহ মিডিয়ার অনেকেই উপস্থিত ছিলেন। উপস্থিত ছিলেন নাঈমের দুই ঘনিষ্ঠ বন্ধু চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ ও অভিনেতা মিশু সাব্বির। নাঈম বলেন, আমার দুই বন্ধু আগেই বিয়ে করেছে। তাই নিজের মাঝেও মনে মনে একটা তাগিদ ছিল শিগগিরই বিয়ে করার।

নাদিয়া খুব ভালো মনের একজন মানুষ। আমাদের উভয় পরিবারের আগ্রহেই এ বিয়ে হয়েছে। এটা আমার সৌভাগ্য যে নাদিয়ার মতো একজন নারী আমার সহধর্মিণী। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন যাতে আমরা সারাটা জীবন একসঙ্গে সুখে-শান্তিতে কাটিয়ে দিতে পারি। নাদিয়া বলেন, সবকিছুই আসলে সৃষ্টিকর্তার অসীম দয়া। একজন মানুষ হিসেবে নাঈমকে যতদূর জানি, বুঝি তাতে আমার জীবন চলার পথে সে আমার পাশে থেকে আমাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে আগামীর পথে। আমরা একে অন্যকে যেন বুঝে ভালোভাবে চলতে পারি, সংসার করতে পারি এ দোয়াই চাই সবার কাছে।

নাঈম জানান, শিগগিরই তার গ্রামের বাড়ি মানিকগঞ্জে, পুরনো ঢাকায় এবং তাদের বাগানবাড়িতে আবারও বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে নাঈম ও নাদিয়া নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুলের নির্দেশনায় এনটিভিতে প্রচার চলতি ধারাবাহিক নাটক ‘বাক্সবন্দী’তে অভিনয় করছেন। উল্লেখ্য, এটি নাঈমের প্রথম বিয়ে হলেও নাদিয়ার দ্বিতীয়। এর আগে অভিনেতা মনির খান শিমুলকে ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন তিনি। কিন্তু ওই সংসার টেকেনি।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts