September 24, 2018

হঠাৎ জেদ্দার আকাশ অন্ধকার, জনমনে আতঙ্ক!

সৌদি আরবের বন্দর নগরী জেদ্দা

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ হঠাৎ বুধবার দুপুরে অন্ধকারাচ্ছন্ন সৌদি আরবের বন্দর নগরী জেদ্দার আকাশ। স্কুলে স্কুলে হঠাৎ ঘোষণা করা হলো, বাকি ক্লাসগুলো আর হবে না।

খবর পেয়ে আতঙ্কিত অভিভাবকরা সন্তানদের নেওয়ার জন্য রাস্তায় নেমে পড়েন। রাস্তায় সৃষ্টি হয় তীব্র যানজট।

সৌদি আরবের আবহাওয়া ও পরিবেশ অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে আল-জৌফ, নর্দান বর্ডার, হেইল, মদিনা, মক্কা এবং উপকূলীয় শহর ইয়ানবু, রাবিঘ, জেদ্দা ও আল- লিথে মঙ্গল ও বুধবার প্রচণ্ড বাতাসের সঙ্গে বজ্রসহ ভারি বর্ষণের পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল।

এই পূর্বাভাসের কারণে জেদ্দা, মক্কাসহ বিভিন্ন শহরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সৌদি গেজেট জানিয়েছে, বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস সবসময় জেদ্দা শহরের অধিবাসীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। কারণ প্রবল বর্ষণে বেশ কয়েকবার বন্যা দেখা দিয়েছে। ২০০৯ ও ২০১১ সালে জেদ্দায় বন্যায় বহুসংখ্যক মানুষের প্রাণহানি হয়েছে।

এক অভিভাবক আতহার ইকবাল বলেন, ‘মুঠোফোনে আমার ছেলের স্কুল থেকে পাঠানো একটি খুদেবার্তায় বলা হয়, খারাপ আবহাওয়ার কারণে ক্লাস বাতিল করা হয়েছে।’

গত মঙ্গলবার জেদ্দার আকাশ পরিষ্কার ছিল। কিন্তু গতকাল শহরের কিছু জায়গা কুয়াশাচ্ছন্ন ছিল। বজ্রপাতের সঙ্গে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিও হয়েছে। একই সঙ্গে ঘণ্টায় ২০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো বাতাস বয়ে যায়।

আবহাওয়া ও পরিবেশ অধিদপ্তর নাবিক, জেলে ও মহাসড়ক ব্যবহারকারীসহ নাগরিক ও প্রবাসীদের এই ধরনের ঝড়ো আবহাওয়ার সময় সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছে।

জেদ্দা পৌরসভার মুখপাত্র মোহাম্মদ আল-বাকামি স্বীকার করেছেন, শহরের আবাসিক এলাকার নিষ্কাশন ব্যবস্থা এখনো কাগজে-কলমে রয়েছে। শহরের প্রধান সড়কগুলোর নিষ্কাশন প্রকল্পের কাজ মাত্র ৩০ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts