December 11, 2018

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ক্ষমতায় থাকার সকল নৈতিক অধিকার হারিয়েছেনঃ ন্যাপ

ব্যাচভিত্তিক নিয়োগের দাবিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর বাসভবন ঘেরাওকালে এবং দ্বীতিয় দফায় ঢাকা মেডেকেল কলেজের সামনে পুলিশের লাঠিচার্জ, জলকামানের গরমপানি নিক্ষেপ ও আন্দোলনরত প্রায় অর্ধশতাধিক নার্সকে আহতা কর এমনকি লাঠিচার্জে একজন নার্সের গর্ভপাতের ঘটনায় তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ক্ষোভ প্রকাশ এবং গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গাণি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া আজ বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে বলেছেন, বর্তমান সরকারের আমলে পুলিশের আচরনে প্রমান করছে এই আইনশৃংখলা বাহিনী জনগনের সেবার পরিবর্তে জননিবর্যাতনের বাহিনীতে পরিনত হচ্ছে।

দাবী আদায়ে কারো বাসভন ঘেরাও, স্মারকলিপি প্রদান, অবস্থান গ্রহন বাংলাদেশের রাজনীতির সংস্কৃতির অংশ। আজকের স্বাস্থ্যমন্ত্রীও হয়তো একসময় এ ধরনের বহু কর্মসূচীতে অংশগ্রহন করেছেন এবং নেতৃত্বও দিয়েছেন। আজ তার মত একজন রাজনীতিবিদের বাড়ী ঘেরাও কালে পুলিশের এই বর্বোরচিত আচরন কি প্রমান করছে ? তিনি কি জানেন না, পুলিশী নির্যাতনের মাধ্যমে কখনোই কোন ন্যায়সঙ্গত অধিকার আদায়ের সংগ্রাম দমন করা যায় না। বরং এই ধরনের ঘটনা হিতে বিপরীত হতে পারে।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেছেন, প্রায় প্রতিদিন গণমাধ্যমের সামনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী যে নীতি বাক্য বর্ষন করেন নিরিহ নার্সদের উপর পুলিশী হামলার পর তিনি জাতিকে কি শোনাবেন ? নাকি র্নিলজ্জেরমত নীতিবাক্যই বর্ষণ করবেন জাতি জানতে চায়। আন্দোলনরত নিরিহ নার্সদের উপর পুলিশী হামলার পর স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ক্ষমতায় থাকার সকল নৈতিক অধিকার হারিয়েছেন।

নেতৃদ্বয় বলেন, বিরোধী দলের নৈতিক ও ন্যায়সঙ্গত আন্দোলনকে দমন করতে গিয়ে এবং ভোট বিহীন অবৈধ নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতাকে দীর্ঘস্থায়ী করতে গিয়ে বর্তমান সরকার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আজ দলীয় পেটোয়া বাহিনীতি পরিনত করেছে। সরকারের কারনেই একসময় বিষফোড়ায় পরিনত হবে।

নেতৃদ্বয় অবিলম্বে আন্দোরণরত নার্সদের দাবী মেনে নেয়া ও আন্দোরনলত নার্সদের উপর বর্বোরচিত হামলার সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি, আহতদের সুচিকিৎসা, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবী জানান।বিজ্ঞপ্তি

Related posts