November 16, 2018

‘স্বপ্নজয়ী মা’ পুরস্কার পাচ্ছেন স্কুল শিক্ষিকা আফরোজা!

জাহিদুর রহমান তারিক, ঝিনাইদহঃ ‘স্বপ্নজয়ী মা’ হিসাবে সম্মাননা পুরস্কার পেয়েছেন ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার সলিমুন্নেছা পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা আফরোজা বুলবুল। মা হিসাবে সন্তানদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তোলার অবদান হিসাবে এই সম্মাননা প্রদান করে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়। বিশ্ব মা দিবসে ‘স্বপ্নজয়ী মা’ শিরোনামে সারাদেশ থেকে ১৫ জন নারীকে এবারই প্রথম এ পুরস্কার প্রদান করা হয়।
রোববার রাজধানীর ইস্কাটন রোড়ের মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের হলরুমে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আফরোজা বুলবুলের হাতে পুরস্কার তুলে দেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি। এসময় উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নাছিমা বেগম ও মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) সাহিন আহমেদ চৌধুরী।

কালীগঞ্জ শহরের থানা পাড়ার মৃত ইমদাদুল হক বাবলুর সহধর্মিনী আফরোজা বুলবুল তিন কন্যা সন্তানের জননী। বড় মেয়ে তানিয়া আফরোজ তিথি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজ বিজ্ঞান বিষয়ে ২০০৬ সালে অনার্স ও ২০০৭ মাস্টার্স প্রথম শ্রেণিতে পাস করেন। তিথি বরিশালের গৌরনদী উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি)। দ্বিতীয় মেয়ে ফারিয়া আফরোজ দ্যূতি খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফরেষ্ট্রি বিষয়ে ২০১০ সালে অনার্স ও ২০১১ সালে মাস্টার্স প্রথম শ্রেণিতে পাশ করেন। দ্যূতি বাংলাদেশ পুলিশের ঢাকা এসবি বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার। ছোট মেয়ে মারিয়া আফরোজ আঁকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিষয়ে প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী।

স্বপ্নজয়ী মা আফরোজা বুলবুল বলেন, ‘বাংলাদেশে ১৫ স্বপ্নজয়ী মায়ের মধ্যে নির্বাচিত হওয়ায় আমি গর্বিত। সরকার এবারই প্রথম এই স্বপ্নজয়ী মা সম্মাননা প্রদান করেছে যেখানে আমি আছি এটা আমার জীবনের বিশাল বড় একটা পাওয়া বলে আমি মনে করি। তিনি বলেন, আমার কোন ছেলে সন্তান নেই। আমার তিন মেয়ে কিন্তু এজন্য আমি কখনোই মন খারাপ করিনি। আমার স্বপ্ন ছিল মেয়েদের সুশিক্ষাই শিক্ষিত করা। আমার আজ সত্যি সত্যিই মনে হচ্ছে আমি সফল হয়েছি।’

কালীগঞ্জ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শরিফা খাতুন বলেন, ‘আমি আমার অধিপ্তরকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। কারন মায়েদের যে সম্মান তা এই ‘স্বপ্নজয়ী মা’ সম্মাননার মধ্যে দিয়ে কিছুটা হলেও দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। আমি মনে করি এই সম্মাননার মাধ্যমে দেশের মা এবং মেয়েরা আরো বেশি এগিয়ে যাওয়ার পথে অনুপ্রাণিত হবেন।’

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/৯ মে ২০১৬

Related posts