November 19, 2018

স্কুলে রুশ ক্ষেপণাস্ত্র, ১২ শিশুর মৃত্যু

সিরিয়া অনেকদিন থেকেই যুদ্ধক্ষেত্র। ইরাক এবং সিরিয়ার একটা বড় এলাকা জুড়ে ঘাঁটি গেড়ে থাকা জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটকে দমন করতে গিয়ে ইউরোপ, রাশিয়া এবং যুক্তরাষ্ট্র মিলে সেখানে বর্ষণ করছে শত শত বোমা। মরছে মানুষ এবং শিশু। সিরিয়ার এলেপ্পো প্রদেশের একটি স্কুলে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা করেছে রুশ যুদ্ধ বিমান। এতে করে কমপক্ষে ১২ জন শিশু নিহত হয়েছে।

সিরিয়াতে অবস্থিত যুক্তরাজ্য ভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা বলেছে, এলেপ্পো শহরের ১৫ কিমি উত্তরে অবস্থিত আইন জারা শহরের এই হামলায় নিহতের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পেতে পারে। কারণ আহতদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আল-জাজিরার একজন সংবাদদাতা ঘটনাস্থল থেকে জানিয়েছেন, স্কুলটি যে জায়াগায় অবস্থিত সেটার নিয়ন্ত্রণ সিরিয়ার বিদ্রোহী বাহিনীর হাতে । উদ্ধারকর্মীরা এখনো ধ্বংসস্তূপের মধ্যে খুঁজছেন আহতদের।

এই যুদ্ধে রুশ বাহিনীর অবস্থান সিরিয়ায় প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের সাথে। তারা অনেক ক্ষেত্রেই বাশারের পক্ষ নিয়ে বিদ্রোহী দলগুলোর উপরে হামলা চালিয়ে আসছে। সিরিয়ার ইদলিব প্রদেশের মারাত আল-নুমান শহরে গত শনিবার একটানা বেশ কয়েকটি বিমান হামলা করে রুশ বিমান বাহিনী। সেই হামলায় মারা যায় প্রায় একশো মানুষ।

২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাস থেকে এ যাবত রুশ বিমান হামলায় প্রাণ হারিয়েছে প্রায় ১ হাজার ৭শ’ ৩০ জন বেসামরিক নাগরিক। তারা আপাতদৃষ্টিতে আইএসের উপর হামলা করলেও সিরিয়ার বিদ্রোহী দলগুলো তাদের মূল লক্ষ্য।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে বরাবরই বেসামরিক নাগরিক লক্ষ্য করে বিমান হামলার কথা অস্বীকার করা হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র বলেছেন, এগুলো সম্পূর্ণ ভুয়া তথ্য।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/মেহেদি/ডেরি

Related posts