November 18, 2018

সুন্দরবন নামে পশ্চিমবঙ্গে নতুন জেলা!

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

দিল্লি ডেস্কঃ ২০১৬ সালের দুর্গাপূজার জেলা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করবে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে নতুন জেলা ‘সুন্দরবন।’ আজ শুক্রবার উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বসিরহাট মহকুমার সন্দেশখালীর বিজয়ী সংঘের ময়দানে এক জনসভায় এমনই ঘোষণা দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পশ্চিমবঙ্গের বৃহত্তর উত্তর ২৪ পরগনা জেলা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার কিছু অংশকে নিয়ে এই সুন্দরবন জেলা হবে।
লক্ষাধিক মানুষের উপস্থিতিতে রাজ্যের উন্নয়নের কর্মকাণ্ড সঙ্গে নিয়ে আগামী বিধানসভা নির্বাচনের জন্য ভোট প্রচারে বিরোধীদের টেক্কা দেওয়ার প্রথম প্রচার এদিন উত্তর ২৪ পরগনা জেলা থেকেই শুরু করে দিলেন মমতা।

এর আগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বসিরহাট মহকুমাকে জেলা করার কথা বলেছিলেন। আজ উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার একটি অংশকে নিয়ে নদীমাতৃক সুন্দরবন জেলা করার ঘোষণা দিলেন তিনি। সেই সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গের বৃহত্তর বর্ধমান এবং মেদিনীপুর জেলাকেও ছোট ছোট জেলায় ভাগ করা হবে বলেও জানান তিনি। মূলত প্রশাসনিক কাজে গতি আনতে এবং সাধারণ মানুষের সুবিধার জন্য এই ছোট জেলার সিদ্ধান্ত বলেও জানান মমতা।

এই জনসভা থেকে উন্নয়নকে সঙ্গী করে কার্যত আগামী বিধানসভা ভোটের প্রচারের কাজও শুরু করে দিয়েছেন মমতা। এদিন মঞ্চ থেকেই ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী উত্তর ২৪ পরগনা জেলাজুড়ে মোট ১৬৮টি নতুন প্রকল্পের উদ্বোধন এবং বিভিন্ন পরিষেবা দেন তিনি। কৃষক, মৎস্যজীবী থেকে সমাজের বিভিন্ন পেশার মানুষজনের মধ্যে নানা সামগ্রী বিলি করেন মুখ্যমন্ত্রী।

জনসভায় মমতা বলেন, ‘কেন্দ্র বিভিন্ন প্রকল্পের অর্থ বন্ধ করে দিয়েছে। ফলে সাধারণ মানুষ আজ বিপাকে পড়েছেন। গত ৩৪ বছর ধরে বাম সরকার এই রাজ্যকে অন্তঃসারশূন্য করে দিয়ে গেছে। এখন কেন্দ্রীয় সরকার বিভিন্ন প্রকল্পের অর্থ বন্ধ করে দিচ্ছে। মানুষ কোথায় যাবে? কিন্তু আমরা সাধারণ মানুষের কথা ভেবে কষ্ট করে হলেও সেই সমস্ত প্রকল্প চালু রেখেছি।’ মমতা আরো বলেন, ‘সাধারণ মানুষ খুশি থাকলে আমরাও খুশি।’

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আমরা রাজ্যের শিক্ষা ও স্বাস্থ্যব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন আনতে চাই। আগামী বছর থেকে রাজ্যের প্রতিটি স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা বিনামূল্যে টেস্ট পেপার পাবে।’ স্বাস্থ্য পরিষেবার ক্ষেত্রে রাজ্যের সরকারি হাসপাতালগুলোতে বিনামূল্যে শয্যা থেকে শুরু করে ওষুধ পাওয়া যায় বলে তিনি উল্লেখ করেন। এমনকি রাজ্যে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উন্নয়নের কথাও জানান তিনি।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts