September 21, 2018

সিরিয়ায় ৫ বছরের গৃহযুদ্ধে নিহত প্রায় ৩ লাখ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  সিরিয়ায় গত পাঁচ বছরের গৃহযুদ্ধে এ পর্যন্ত প্রায় তিন লাখ মানুষ নিহত হয়েছে। উদ্বাস্তু হয়ে পড়েছে দেশটির জনসংখ্যার অর্ধেকরও বেশি মানুষ। এছাড়া যুদ্ধে দেশটির বিরাট অংশ ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস-এর দেয়া তথ্যানুযায়ী সংঘাতের কারণে এ পর্যন্ত ২ লাখ ৭০ হাজার লোক নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে সাড়ে ২৩ হাজার শিশুসহ প্রায় ৮০ হাজার বেসামরিক নাগরিক। তবে, আশংকা করা হয়ে থাকে, সরকার, বিদ্রোহী বা জিহাদিদের হাতে আটক অবস্থায় অজ্ঞাত সংখ্যক লোক নিহত হওয়ায় এ সংখ্যা আরো অনেক বেশি হতে পারে।

গত ফেব্রুয়ারিতে জাতিসংঘের তদন্তকারীরা সরকারের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন কারাগার এবং বন্দি শিবিরগুলোতে হত্যাকান্ড চালানোর অভিযোগ তোলেন।

চলতি মাসে একটি ফরাসি বেসরকারি সংস্থা হ্যান্ডিক্যাপ ইন্টারন্যাশনাল বলেছে, যুদ্ধে এ পর্যন্ত ১০ লাখ লোক আহত হয়েছে। জানুয়ারিতে একটি সিরিয়ান ত্রাণ সংস্থা দেশের বিভিন্ন চিকিৎসা প্রতিষ্ঠানে উপর্যুপরি বোমা বর্ষণের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে বলেছে, ২০১১ সাল থেকে দেশটিতে ১৭৭টি হাসপাতাল বিধ্বস্ত এবং প্রায় ৭শ’ স্বাস্থ্যকর্মী নিহত হয়েছে।

জানুয়ারিতে জাতিসংঘ জানিয়েছিল, দেশটির যুদ্ধ-পূর্ব ২ কোটি ৩০ লাখ জনসংখ্যার মধ্যে ১ কোটি ৩৫ লাখ লোক তাদের বাড়ি-ঘর ছেড়ে যেতে বাধ্য হয়েছে।

দাতব্য প্রতিষ্ঠান সেভ দ্য চিলড্রেন এ মাসে বলেছে, সিরিয়ায় অন্তত আড়াই লাখ শিশু অবরুদ্ধ অবস্থায় বাস করছে। তাদের অনেকেই বাধ্য হয়ে পশুখাদ্য বা লতাপাতা খেয়ে কোনমতে প্রাণে বেঁচে আছে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনারের মতে, আনুমানিক ৪ লাখ ৮০ হাজার লোক অবরুদ্ধ অবস্থায় বসবাস করছে। প্রায় ৪৭ লাখ লোক পার্শ্ববর্তী দেশগুলোতে পালিয়ে গেছে।

Related posts