September 21, 2018

সাদুল্যাপুরে হিন্দু ধর্ম ত্যাগে মুসলিম ধর্ম গ্রহন করল এক যুবক

zakir p
তোফায়েল হোসেন জাকির ॥ গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে হিন্দু সম্প্রদায়ের শ্রী রতন বাবু (১৮) নামের এক যুবক নিজ ধর্ম ত্যাগ করে মুসলিম ধর্ম গ্রহন করেছে। ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে সম্যক ধারণা অর্জনে গত সোমবার গাইবান্ধা নোটারী পাবলিক কার্যালয়ে এফিডেভিটের মাধ্যমে মুসলিম ধর্ম গ্রহন করেছে রতন বাবু। এফিডেভিটে তার নাম রাখা হয়েছে মোঃ আব্দুল্লাহ শেখ। বর্তমান তার বাড়ি উপজেলার বনগ্রাম ইউনিয়নের মন্দুয়ার গ্রামে। তবে জন্মসুত্রে রতন বাবু রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার লক্ষনপুর মচিরহাট গ্রামের মৃত ধলু বাবুর ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, রতন বাবুর বাবা ধলু বাবু মৃত্যুর পর মা শান্তনারানী বিধবা হয়। এর পর প্রায় আড়াই বছর আগে শান্তনারানী হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে এবং ফাতেমা বেগম নাম রেখে মন্দুয়ার গ্রামের মুসলিম বাসিন্দাকে বিয়ে করেন। শুধ তায় নয়, রতন বাবুর দুই বোন মমতাজ রানী ও বুলবুলী রানী ইতিপুর্বে হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে মুসলিম ধর্ম গ্রহন পুর্বক বিবাহ বন্ধ আবন্ধ হয়ে দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন বলে জানা গেছে। সবমিলে একই পরিবারের ৪ জন মুসলিম ধর্ম গ্রহন করেছে বলে জানায় রতন বাবু।

এ বিষয়ে রতন বাবু বলেন, আমার জ্ঞান-বুদ্ধি সম্পন্ন হওয়ার পর হতে ধর্মীয় আচার-আচারণ জানতে পারি যে, পবিত্র ইসলাম ধর্ম সের্বোৎকৃষ্ট। আমি প্রকাশ্যে ও গোপনে ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে সম্যক ধারণা অর্জন করি। তাই ইসলাম ধর্ম গ্রহন করে জীবনকাল অতিবাহিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। বর্তমানে এলাকার লোকজন আমাকে আব্দুল্লাহ শেখ নামে চেনে ও জানে। আব্দুল্লাহ শেখ এখন সাদুল্যাপুর শহরের মিডলী সু-ষ্টোরে কর্মরত আছে। বনগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীন সরকার এ বিষয়ে সত্যতা স্বীকার করেছেন।

Related posts