September 21, 2018

সাদুল্যাপুরের ভাতিজা বউয়ের ছুড়িকাঘাতে শ্বাশুড়ী আহত

04
স্টাফ রিপোর্টার, গাইবান্ধা ॥ গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলার নলডাঙ্গায় বসতভিটার পরিমাপকে কেন্দ্র করে ভাতিজা বউয়ের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে জ্যাঠা শ্বাশুড়ী ও তার ছেলে রক্তাক্ত জখম হয়েছে। স্থানীয়রা তাদেরকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে দ্রুত গাইবান্ধা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি কারান। এঘটনায় বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিল।
স্থানীয়রা জানান, উপজেলার নলডাঙ্গা দশলিয়া গ্রামের মৃত ভূপেন চন্দ্র মহন্তের ছেলে দীপক কুমার মহন্ত ও তার কাকাতো ভাই ভবেশ চন্দ্র মহন্তের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বসতভিটার ভাগ বাটোয়ারা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। ঘটনার দিন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, মেম¦র ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ বিষয়টি নিরসনের জন্য বিবদমান বসতভিটা পরিমাপ করতে ছিলেন। এরই মধ্যে বুধবার সন্ধ্যায় ভবেশ চন্দ্র মহন্তের স্ত্রী ডানপিটে ভাতিজা বউ শাপলা রানী (৩২) উপস্থিত লোকজন কাউকে কিছু বুঝতে না দিয়ে হঠাৎ করে জ্যাঠা শাশুড়ী আরতী রানীকে (৬৮) ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ী ভাবে কোপাতে থাকে। এ সময় মা আরতী রানী কে রক্ষার জন্য ছেলে অরূপ কুমার (৩৮) এগিয়ে গেলে শাপলা রানী তাকেও অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে রক্তাত্ত জখম করে ফেলে। পরে উপস্থিত লোকজন শাপলা রানীর এহেন দু:সাহসিক আচরনে চরম ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে।
এমতবস্থায় অবস্থার বেগতিক ভেবে শাপলা রানী দৌড়ে তার ঘরে গিয়ে দরজা বন্ধ করে দিয়ে আতœরক্ষা করেন। নলডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম নয়ন এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন বিষয়টি স্থানীয় ভাবে মীমাংসার জন্য আলাচনা চলছে।

Related posts