September 20, 2018

সাংবাদিকদের কাছে কেঁদে কেঁদে যা বললেন সাফাতের মা

fঢাকা::ছেলের অপকর্মের বিষয়ে এবার মুখ খুললেন ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত সাফাতের মা নিলুফার জেসমিন। সাফাতের বাবাই ছেলেকে অনেক অসৎ কাজ করতে উৎসাহ দিয়েছেন এবং তার কারণে লাই পেয়েই ছেলের আজকে এই দশা হয়েছে বলে জানান তিনি। তিনি নির্যাতিত দুই মেয়েদের সাথে যা হয়েছে তা সত্য হলে এটি অন্যায় বলেও অভিমত দেন। গতকাল শনিবার সাংবাদিকদের কাছে তিনি একথা বলেন।

তিনি বারবার কেঁদে উঠছিলেন এবং বলছিলেন, এত টাকা আর প্রাচুর্য চারিদিকে কিন্তু তার মনে কোনো শান্তি নেই। রাস্তার কুকুর থেকে শুরু করে সমাজের সকলেই এখন তাদের ঘৃণা করে। সারাদেশে তাদের বিরুদ্ধে এত প্রতিবাদে তিনি অত্যন্ত বিব্রত ও ভীত বোধ করছেন। গত কয়েক দিন ধরে তিনি তার নিজের বাড়িতেও থাকতে পারছেন না।

ছেলের অপকর্মের বিষয়ে নিলুফার জেসমিন বলেন, সাফাত তার স্কুলে পড়া অবস্থা থেকেই নানা রকম মেয়ে নিয়ে পার্টিতে যেতো এবং বাসায় নিয়ে আসতো। আমি অনেকবার মানা করলেও তার বাবা সবসময় আমাকে বলতো- এই বয়সে এমন করেই। এমনকি সাফাত যখন আমার বৌমা পিয়াসাকে বিয়ে করে ঘরে এনেছিল তখন সেটি ভাঙার জন্য সাফাতের বাবাই সব রকমের চেষ্টা করেছিল। পিয়াসা থাকার সময় আমার ছেলেটা অনেক ভালো ছিল। পিয়াসাকে ডিভোর্স দেওয়ার পেছনে সব কলকাঠি নেড়েছে তার বাবা। তিনি বলেন, এই ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত তার ছিল না এবং এটা তিনি পছন্দ করেননি।

নাঈম আশরাফ সম্পর্কে তিনি বলেন, এই ছেলেটা সারাক্ষণ আমার বাড়িতে পড়ে থাকতো। সাফাতের কাছ থেকে টাকা নিয়ে চলতো। এই নাঈমকে সাফাতের বাবাই ঘরে নিয়ে আসে ছেলের সাথে থাকার জন্য। আমি কতবার বলেছি একে বাসায় না রাখার জন্য। কিন্তু আমাকে ধমকে চুপ করিয়ে দেয়া হতো।

তিনি আরো বলেন, তার ছোটো ছেলে ইফাতের জন্যও তার ভয় হয়। বড়টার মতো নষ্ট হয়ে যায় কি না। তিনি বলেন, অন্যায় করে থাকলে সাফাতের শাস্তি হোক, এটাই আমি চাই। কিছুদিন জেলে থাকলে টাকার গরম কিছুটা কমবে।

Related posts