November 17, 2018

“সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে”

খুলনা : প্রধান তথ্য কর্মকর্তা একেএম শামীম চৌধুরী ‘প্রেস’কে রাষ্ট্রের ৪র্থ স্তম্ভ হিসেবে উল্লেখ করে বলেছেন, দেশের ও নিজেদের স্বার্থে সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

ঐক্যবদ্ধতাই পারে সাংবাদিকদের শাক্তিশালী করতে। দেশের টেকসই উন্নয়নে সাংবাদিকদের গুরত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

তিনি মঙ্গলবার দুপুরে খুলনা সার্কিট হাউজ সম্মেলন কক্ষে খুলনার সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিস (পিআইডি) এ সভার আয়োজন করে।

প্রধান তথ্য অফিসার বলেন, সাংবাদিকরা হচ্ছেন জনগণের শিক্ষক। সাংবাদিকদের নিয়ন্ত্রণ করার কোনো ইচ্ছা বর্তমান সরকারের নেই। এ সরকার মিডিয়াবান্ধব সরকার। সাংবাদিকদের কল্যাণেই সরকার কল্যাণ ট্রাস্ট গঠন করেছে এবং চিকিৎসাসহ বিভিন্ন সহায়তা প্রদান করছে।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঠিক নেতৃত্বে বাংলাদেশ ইতিমধ্যে এমডিজি অর্জনে সফল হয়েছে এবং এসডিজি লক্ষ্যমাত্রা পূরণেও সরকারের রয়েছে সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা। টেকসই উন্নয়নে ইতিমধ্যে সরকার ১০টি বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন, আর এতে সফল হলে দেশ ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তথ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত প্রধান তথ্য অফিসার মোহাম্মদ ইসতাক হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মো. মাহবুব হাকিম, অতিরিক্ত ডিআইজি মো. একরামুল হাবিব, খুলনা বেতারের আঞ্চলিক পরিচালক মো. বশির উদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এসএম শফিউল্লাহ।

স্বাগত বক্তৃতা করেন খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের সিনিয়র তথ্য অফিসার জিনাত আরা আহমেদ।

মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিটিভি খুলনা জেলা প্রতিনিধি মকবুল হোসেন মিন্টু, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি এসএম জাহিদ হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক মো. শাহ আলম, দেশ সংযোগ পত্রিকার সম্পাদক মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, নিউ নেশনের মুনির উদ্দিন আহমেদ, সাংবাদিক নেতা মোজাম্মেল হক হাওলাদার, বিজয় টিভির প্রতিনিধি ফারুক আহমেদ, পূর্বাঞ্চলের অমিয় কান্তি পাল ও সাহেব আলী ও আলোকিত সংবাদের শামীম আশরাফ শেলী।

Related posts