November 19, 2018

সম্পর্কটাই আসল, বিদ্যুতের দাম বিষয় নয়ঃ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ

বাংলাদেশের ভারতের মধ্যে সম্পর্কটাই আসল, বিদ্যুতের দাম কোনো বিষয় নয় বলে মন্তব্য করেছেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। রোববার এক সেমিনারে ভারতের ত্রিপুরা থেকে বিদ্যুৎ আমদানিতে দামের বিষয়ে জানতে চাইলে এ মন্তব্য করেন প্রতিমন্ত্রী।

শনিবার ত্রিপুরা এবং বাংলাদেশের মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে আগামী পাঁচ বছরের জন্য সাড়ে পাঁচ রুপি (৬ দশমিক ৪৩ টাকা) দরে ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানির সিদ্ধান্ত হয়। আগামী এক মাসের মধ্যে ওই বিদ্যুৎ বাংলাদেশের জাতীয় গ্রিডে যোগ হবে।

এ দাম ভারত থেকে বর্তমানে আমদানি করা ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের চেয়ে বেশি বলে সংশ্লিষ্টদের দাবি।

ত্রিপুরা আরো ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ বাংলাদেশকে দিতে চায় বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, ত্রিপুরা থেকে আরো ১০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ নেয়ার বিষয়ে আমরা আলোচনা করেছি। তারা (ত্রিপুরা) আমাদের প্রস্তাবে সম্মত হয়েছে।

সূত্র জানায়, পালটানা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৭০০ মেগাওয়াটের মধ্যে ত্রিপুরার জন্য ৩০০ মেগাওয়াট দরকার হয়। বাকিটা হয় তাদের (ভারতের) জাতীয় গ্রিডে দিতে হবে নয়তো উৎপাদন বন্ধ রাখতে হয়। বাংলাদেশে ১০০ মেগাওয়াট বিক্রির পরও তাদের বাড়তি বিদ্যুৎ থেকে যাবে। এ অবস্থায় ত্রিপুরা কেন্দ্রীয় সরকারের অনুমোদন নিয়ে বাংলাদেশের কাছে আরো বিদ্যুৎ বিক্রি করতে চায়।

তবে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানির একজন কর্মকর্তা জানান, ত্রিপুরা বাড়তি বিদ্যুৎ দিতে চাইলেও এখনই তা আনা সম্ভব নয়। এক্ষেত্রে একটি উচ্চ ক্ষমতার ব্যাক টু ব্যাক সাবস্টেশন ( এইচভিডিসি) নির্মাণ করতে হবে। কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় এ ধরনের সাবস্টেশন নির্মাণ করে ভারত থেকে বিদ্যুৎ আমদানি করা হচ্ছে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts