September 20, 2018

সত্য হল বিএনপির চির শত্রু মিথ্যাচার হল তাদের মূল সম্পদ – ডা. দীপু মনি এমপি

1এ কে আজাদ, চাঁদপুর : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকেলে জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ডা. দীপু মনি এমপি। তিনি বলেন, জাতির পিতা যদি সেদিন স্বাধীন বাংলাদেশে ফিরে না আসতেন। তাহলে আমরা এই স্বাধীনতাকে ধরে রাখতে পারতাম কিনা সন্ধিহান ছিল। তিনি দেশে ফিরে এসে যুদ্ধ বিদ্ধস্থ দেশকে একটি উন্নত সমৃদ্ধশীল রাষ্ট্র তৈরীর লক্ষ্যে কাজ করেছেন। যারা গণতন্ত্রের নামে মানুষ পুঁড়িয়ে হত্যা করে, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান পুঁড়িয়ে দেয়, বিরোধী দলের নেতৃসহ নেতাকর্মীদের গ্রেনেড দিয়ে হত্যা অপচেষ্টা চালায়। সেই বিএনপির কাছ থেকে আমাদের কারো গণতন্ত্রের সবক নেওয়া সমূচিত বলে মনে করি না। বিএনপির চির শত্রু হল সত্য। মিথ্যাচারই হল তাদের মূল সম্পদ। জোড়াতালির পদ্মা সেতু দিয়ে জনগণকে পারাপার না হওয়ার জন্য বলেছেন বেগম জিয়া। তাহলে নৌকাই হবে পারাপারে তার শেষ ভরসা। আসলে তারা সর্বদা ব্যক্তি স্বার্থ হাসিলের জন্য একটি ধু¤্রজাল সৃষ্টি করে দেশকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টায় লিপ্ত করাই হল তাদের মূল উদ্দেশ্য। তিনি বলেন, যুদ্ধকালিন সময়ে বিএনপি নেতৃসহ অন্যান্য সেনা অফিসারদের স্ত্রীরা সেনা ক্যাম্পে ছিলেন। তারা যে যেভাবে পেরেছেন বেড়িয়ে এসেছেন। কিন্তু বিএনপি নেত্রীকে লোক পাঠিয়েও সেনা ক্যাম্প থেকে আনা যায়নি। তাহলে আমরা কি মনে করব? তিনি সেখানে স্বেচ্ছায় ছিলেন। তা না হলে তিনি বিরঙ্গনা। না হয় পাকিস্তানের দোশর ছিলেন। তিনি আরোও বলেন, আমাদের দেশের অর্ধেক নারী। আমরা যদি সরকারের উন্নয়ন কথাগুলো নিয়ে জনগণের কাছে যাই। তাহলে জাতির জনকের ভাষায় বলি কেউ আমাদের আর দাবিয়ে রাখতে পারবে না। নৌকা বিজয় হবেই হবে। কারণ দেশের মানুষের উন্নয়ন ও কল্যাণের জন্য শেখ হাসিনাকে দরকার। সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, পদ্মা সেতু নিয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে যে বক্তব্য দিয়েছেন। এতে তাকে আমরা পাগল বলতে পারি না। তবে তার বক্তব্যে বুঝা গেছে তিনি একজন নেশাগ্রস্ত। তিনি আরোও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান এমন একজন মহান নেতা যার গুণ ও আদর্শের কথা বলা শেষ করা যাবে না। বঙ্গবন্ধু মানে একটি দর্শন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু জন্ম না হলে আমরা হয়তো স্বাধীনতার স্বাদ পেতাম না। তিনি জন্মেছিলেন বলেই মাত্র ৯ মাসের সশস্ত্র সংগ্রামের মধ্য দিয়ে বহু ত্যাগের বিনিময়ে আমরা একটি স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ পেয়েছি। শিক্ষিত জাতি, কল-কারখানা, দারিদ্রমুক্ত দেশ, দেশের উন্নয়ন সব কিছুই হল বঙ্গবন্ধুর চিন্তা-ধারা। এসব সামনের রেখে বঙ্গবন্ধু যে সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছেন তা বাস্তবায়নে তারই সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন। আলোচনা সভায় জেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক শাহ আলম মিয়াজীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, সহ-সভাপতি শহিদুল্লাহ মাস্টার, ইঞ্জিঃ আব্দুর রব, আব্দুর রশিদ সর্দার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. জহিরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী, অ্যাড. মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, শাহীর হোসেন পাটওয়ারী, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাড. বিনয় ভূষন মজুমদার, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক নূরুল ইসলাম মিয়াজী, সহ-প্রচার সম্পাদক অ্যাড. রনজিৎ রায় চৌধুরী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপিকা মাসুদা নূর খান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক এস এম জয়নাল আবেদীন, যুগ্ম আহ্বায়ক জাফর ইকবাল মুন্না, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মাহফুজুর রহমান টুটুল, পৌর যুবলীগ আহ্বায়ক মালেক শেখ, জেলা শ্রমিকলীগ (ভারপ্রাপ্ত) সভাপতি মাহবুবুর রহমান প্রমুখ। আলোচনা সভা শেষে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইউসুফ গাজীর সুস্থতা কামনায় ও সকল রুহের মাগফেরাত কামনায় মোনাজাত পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল।

Related posts