November 16, 2018

সংঘর্ষ আ’লীগে আ’লীগে, মামলা বিএনপির নামে!


জাহিদুর রহমান তারিক,ঝিনাইদহ:  ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ছয়াইল গ্রামে শুক্রবার আওয়ামীলীগের বিবাদমান দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে মীর আকামত হোসেন নামে এক দলীয় কর্মী নিহত হওয়ার ঘটনায় শনিবার একটি হত্যা মামলা হয়েছে। নিহতের ভাই আকবর হোসেন বাদী হয়ে শুক্রবার সকাল ১০ টার দিকে ঝিনাইদহ সদর থানায় মামলাটি করেন। মামলায় ঝিনাইদহের পদ্মাকর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আনোয়ার হোসেনকে এক নং আসামী করে ৭৩ জনের নাম উল্লেখ পুর্বক অজ্ঞাত আরো ৬০ জনসহ মোট ১৩৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। যার মামলা নং ১৩। নির্ভরযোগ্য একটি সুত্র জানায় আকামত হত্যা মামলায় বিএনপির পাশাপাশি আওয়ামীলীগের গ্রাম পর্যায়ের অনেক কর্মীকে আসামী করা হয়েছে।

এদের মধ্যে আওয়ামীলীগ নেতা এমাজুল ও বিএনপি নেতা রেজাউল আসামী হয়েছেন। ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাসান হাফিজুর রহমান মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে সাংবাদিক জাহিদুর রহমান তারিক কে জানান, আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশি অভিযান শুরু করা হয়েছে। উল্লেখ্য শুক্রবার আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার নিয়ে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পদ্মাকর ইউনিয়নের সয়াইল গ্রামে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বিকাশ ও দলীয় প্রার্থী নিজামুল গনি লিটুর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষে বিকাশ গ্রুপের সমর্থক আওয়ামীলীগ কর্মী মীর আকামত হোসেন নিহত হন। সামাজিক ভাবে ছয়াইল গ্রামের শাহাবুদ্দীন হচ্ছে স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা বিকাশ গ্রুপ ও ইমাজুল ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়া নিজামুল গনি লিটুর সমর্থক। শুক্রবার শাবাবুদ্দীন ও ইমাজুলের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।

এদিকে আওয়ামীলীগের বিবাদমান দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহত হওয়ার ঘটনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে মিথ্যা ও ষড়যন্ত্র মুলক মামলা দায়েরের নিন্দা জানিয়েছেন ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বিএনপির সভাপতি এড মুন্সি কামাল আজাদ পাননু ও সাধারণ সম্পাদক এড আব্দুল আলীম। বিএনপি নেতৃবৃন্দ এক বিবৃতিতে উল্লেখ করেন, পদ্মাকর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আনোয়ার হোসেন দীর্ঘদিন পানি পক্স রোগে আক্রান্ত হয়ে শয্যাশায়ী। অথচ তাকে এক নাম্বার আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করে প্রকৃত খুনিদের আড়াল করার চেষ্টা করা হচ্ছে। বিএনপি নেতৃবৃন্দ এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার পুর্বক পুলিশ হয়রানী বন্ধ করার দাবী জানান।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/০৯ এপ্রিল ২০১৬/রিপন ডেরি

Related posts