September 22, 2018

শৈলকুপায় ছাত্রীকে মারপিঠ; বিষ পানে আত্নহত্যার চেষ্ঠা

471
শিপলু জামান,ঝিনাইদহ:    ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার কেশনগর গ্রামের ব্র্যাক স্কুলের ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী লাভলী খাতুন জরিমানার  টাকা না দিতে পারায় শিক্ষিকা বেত দিয়ে মারপিঠ করায় এতে ক্ষুদ্ধ হয়ে ছাত্রীটি বিষ পানে আত্নহত্যার চেষ্ঠা করে বলে অভিযোগ উঠেছে। শিশুটি বর্তমানে শৈলকুপা হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছে।

হাসপাতালের বেডে শুয়ে ওই শিক্ষার্থী জানায়, তার বাবা কাঠমিস্ত্রিীর কাজ করেন। দরিদ্র মানুষ তারা। ৩ দিন স্কুল কামাই করে স্কুলে গেলে ম্যাডাম মুক্তি বেগম ৬০ টাকা জরিমানা করে। তখন লাভলী জানায় আগামী কাল বাড়ি থেকে টাকা এনে দেব। এ কথায় ম্যাডাম রাগান্বিত হয়ে বেত দিয়ে তার শরীরে আঘাত করে । গতকাল বিকালে   মনের দুঃখে টিফিনের সময় বাড়ি ফিরে ভাত খাওয়ার পরে সে বিষ পান করে। এরপর সে ফের স্কুলে যায়।

ছাত্রীর মা  লাইলী খাতুন বলেন, স্কুলে যাওয়ার পর তার মেয়ে বমি করতে থাকে। তখন শিক্ষিকা মুক্তি ম্যাডাম বাড়িতে খবর দেন। খবর পেয়ে তিনি মেয়েকে শৈলকুপা হাসপাতালে এনে ভর্তি করেন। বর্তমানে ছাত্রী লাভলী আশংকা মুক্ত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে।

শৈলকুপা ব্র্যাক অফিসে গিয়ে শাখা ব্যাবস্থাপক কৃষ্ণ বিশ্বাসকে পাওয়া যায় নি । তবে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন এমন একটি বিষয় শুনেছি। মুল বিষয়টি জানার জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত শেষে সঠিক বিষয়টি জানানো যাবে।

শৈলকুপা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিদারুল হক মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানান, শিক্ষিকা মুক্তি বেগম ছাত্রীটিকে বকা-ঝোকা করেছিল বলে আমি শুনেছি। ব্র্যাক কর্মকর্তাদের সাথে এ বিষয়ে কথা বলবেন বলে জানান।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts