September 25, 2018

শৈলকুপায় আ’লীগের দু’গ্রুপের হামলা-ভাঙচুরঃ আহত ১৫

ঢাকাঃ  ঝিনাইদহ জেলার শৈলকুপা উপজেলার হাটফাজিলপুর বাজারে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের মধ্যে নির্বাচনী সংঘর্ষে নৌকা প্রতীকের ১৫ সমর্থক আহত হয়েছেন।

শুক্রবার বিকেলে এ সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।

আহতদের মধ্যে তাৎক্ষণিকভাবে পিকুল, জুয়েল, আমির হোসেন মোল্লা, সনেট ও সবুজের পরিচয় পাওয়া গেছে। তাদের হাসপাতাল ও বিভিন্ন ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় ১১টি বাড়ি ভাঙচুর ও দু’টি বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়। এতে প্রায় কোটি টাকার সম্পদ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এ রিপোর্ট পাঠানো (শুক্রবার সন্ধ্যা ৬.৩০) পর্যন্ত শৈলকুপার মিনগ্রাম ও আবাইপুরে সংঘর্ষ চলছিল।

প্রত্যাক্ষদর্শী হাটফাজিলপুর গ্রামের আবু বক্কার বিশ্বাস জানান, নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পর থেকেই হাটফাজিলপুর বাজারে নৌকার সমর্থকদের অবরুদ্ধ করে রাখে স্বতন্ত্র প্রার্থী (বিদ্রোহী) হেলাল উদ্দীনের সমর্থকরা। বাজার থেকে তাদের বের হতে দেয়া হয় না। আজ বিকেলে নৌকার সমর্থক কৃপালপুর গ্রামের কুদ্দুস বিশ্বাসের ছেলে জুয়েলকে মারধর করে স্বতন্ত্র প্রার্থীর হেলাল উদ্দীন বিশ্বাসের লোকজন। এ ঘটনার জের ধরে হাটফাজিলপুর গ্রামের মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থীর (আনারস প্রতিক) প্রচার মাইক আটকে দেয় নৌকা সমর্থকরা।

এ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের সুত্রপাত ঘটে। একপর্যায়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর লোকজন আ’লীগ সমর্থক নিরু বিশ্বাস, আব্দুল কুদ্দুস, সিদ্দিক হোসেন, হাবিবুর রহমান, রেন্টু, মসলেম উদ্দীন, বাবলু, রব্বানী, উকিল মোল্লা, আবুল হোসেন ও আবু বক্কারের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে। এ সময় তারা আব্দুল কুদ্দুস এবং বাবুলের বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে প্রায় কোটি টাকার সম্পদ বিনষ্ট হয়েছে।

আবাইপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের প্রার্থী মুক্তার হোসেন মৃধা অভিযোগ করেন, বিএনপি জামায়াতের লোকজন নিয়ে তার প্রতিপক্ষ হেলাল উদ্দীন বিশ্বাস আমার সমর্থকদের মারধর ও বাড়ি ঘরে হামলা চালিয়েছে। টাকা দিয়ে পুলিশ ও শৈলকুপার প্রশাসনকেও কিনে নিয়েছে। এ নিয়ে আমি সাংবাদিক সম্মেলন করে পরিস্থিতির ব্যাখা দিয়েছি।

অন্যদিকে অভিযোগ খন্ডন করে স্বতন্ত্র প্রার্থী হেলাল উদ্দীন বিশ্বাস জানান, আওয়ামী লীগ প্রার্থীর লোকেরাই নির্বাচনী মাঠে প্রভাব বিস্তার করে আনারস প্রতিকের সমর্থকদের উপর বিভিন্ন সময় হামলা করছে। আজকের হামলার সাথে আমার কোনো লোকজন জড়িত নয় বলেও হেলাল উদ্দীন বিশ্বাস দাবি করেন।

শৈলকুপা থানার ওসি মহিবুল ইসলাম জানান, নির্বাচনের মাঠে আধপত্য বিস্তার নিয়ে আজ বিকেলে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মুক্তার হোসেন মৃধা ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হেলাল উদ্দীন বিশ্বাসের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এতে বেশ কয়েকজন আহত ও কিছু বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি ২৭ মে ২০১৬

Related posts