November 19, 2018

শেষ চারে রংপুর রাইডার্স

সাকিব আল হাসানের রংপুর রাইডার্স।

স্পোর্টস ডেস্কঃ কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের পর দ্বিতীয় দল হিসেবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চলতি আসরে শেষ চারে জায়গা করে নিয়েছে সাকিব আল হাসানের রংপুর রাইডার্স। সোমবার দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে সিলেট সুপার স্টারসকে আট উইকেটে হারিয়ে শেষ চারের টিকিট পায় তারা। এর আগে দিনের প্রথম ম্যাচে বরিশাল বুলসকে ৭ উইকেটে হারিয়ে নকআউট পর্ব নিশ্চিত হয় মাশরাফির দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে একদিনের ব্যবধানে সিলেটের ভিন্ন চিত্র দেখা গেল। আগের দিন বরিশালকে নাকানি-চুবানি দিয়ে ৯ উইকেটে জিতেছিল সিলেট। বিপিএলে সর্বনিম্ন ৫৮ রানে বরিশালকে অলআউট করেছিল তারা। পরের ম্যাচে লজ্জার সেই রেকর্ড ভাঙার উপক্রম তৈরি হয় সিলেটের। শেষ পর্যন্ত মাত্র ১ রানের জন্য সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় পড়তে হয়নি শহীদ আফ্রিদির দলকে।

বিশেষ করে স্পিনে কাবু হয়ে পড়েছিল সিলেট। আরাফাত সানি, সাকিব আল হাসান ও মোহাম্মদ নবী এই স্পিনার ত্রয়ীর সামনে দাঁড়াতেই পারেননি আফ্রিদি-মুশফিকরা। দলীয় এক রানেই দিলশান মুনাবিরা সাজঘরের পথে হাঁটেন। তাকে অনুসরণ করে একে একে সবাই আসা-যাওয়ার মিছিলে শামিল হন। সামান্য একটু ব্যতিক্রম ছিলেন পাকিস্তানের সোহেল তানভির। তার ১৭ বলের ২০ রানের ইনিংসই সর্বনিম্ন রানের লজ্জা থেকে বাঁচায় সিলেটকে। সোহেল তানভির ছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যান দুই অঙ্ক ছূঁতে পারেননি।

রংপুরের বোলারদের মধ্যে ১৪ রান দিয়ে চার উইকেট নিয়েছেন আরাফাত সানি। এছাড়া মোহাম্মদ নবী ৩টি ও সাকিব আল হাসান নিয়েছেন দুটি করে উইকেট। স্পিনারদের এই মিছিলে ব্যতিক্রম শুধু থিসারা পেরেরা। লঙ্কান এই পেসার এক ওভার বল করে নিয়েছেন একটি উইকেট।

পরে সহজ লক্ষ্য তাড়া করতে খুব বেশি বেগ পেতে হয়নি রংপুরকে। যদিও মাত্র ২২ রানের মধ্যে দুই ওপেনার লেন্ডল সিমন্স (৫) ও সৌম্য সরকারের (১১) উইকেট হারায় রংপুর। দুই ওপেনারকেই সাজঘরে ফেরত পাঠিয়েছেন সিলেটের বোলার মোহাম্মদ শহীদ। সাকিব আল হাসান ও জহুরুল ইসলামের জন্য বাকি পথ পাড়ি দিতে কোনো বেগ পেতে হয়নি। ৯.৫ ওভারে দুই উইকেট হারিয়েই লক্ষ্যে পৌঁছে রংপুর। সাকিব ২৪ বলে ২৯ এবং জহুরুল ১৩ বলে ৯ রান করে অপরাজিত থাকেন।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts