September 26, 2018

শহীদ জিয়া দেশের গণতন্ত্রকে পূর্ণউদ্ধার করতে বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন – বিএনপি

এ কে আজাদ,
চাঁদপুর প্রতিনিধিঃ
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির ৩৮ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে চাঁদপুর জেলা বিএনপি দিনব্যাপি ব্যাপক কর্মসূচি পালন করেছে। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ১লা সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বিকেলে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সিনিয়র যগ্ম আহ্বায়ক অ্যাড. সলিম উল্ল্যাহ সেলিম।

জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মনির চৌধুরীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি দেওয়ান মো. সফিকুজ্জান শহর বিএনপির সভাপতি আক্তার হোসেন মাঝি, সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. হারুনুর রশিদ, সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. শামছুল ইসলাম মন্টু, জেলা যুবদলের সভাপতি শাহজালাল মিশন, সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব হযরত আলি ঢালী, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য মীর আনোয়ার হোসেন বাচ্চু জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি নজরুল ইসলাম বাদল, জেলা কৃষক দলের সভাপতি এনায়েত উল্যাহ খোকন, সদর উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মোফাজ্জল হোসেন চান্দু, শহর যুবদলের আহ্বায়ক আ. কাদির বেপারি. সদর উপজেলা যুবদলের আকতার হোসেন সাগর, জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক ফয়সাল আহমেদ বাহার, সদর উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক ইমাম এইচ গাজি, শহর ছাত্রদলের আহ্বায়ক এইচএম ইসমাইল পাটওয়ারী, সরকারি কলেজ ছাত্রদলের সভাপতি জিয়াউর রহমান সোহাগ, সদর উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সরোয়ার গাজি, শহর যবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মোস্তাফা বন্ধুকসী, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক খোকন মিজি, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা মহসিন পাটোয়ারী, ১৫ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি রেজাউল করিম মানিক প্রমুখ।

আলোচনায় বক্তারা বলেন, আজ শুধুমাত্র বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী নয়, আজ গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। আজ থেকে ৩৮ বছর আগে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান দেশের দিশেহারা গণতন্ত্রকে পূর্ণউদ্ধার করতে বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেছেন। তিনি ছিলেন এদেশের বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা। তৎকালিক সময়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতিক ব্যর্থতা ও গণতন্ত্রকে পদপৃষ্ট করার কারণে বিএনপি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিলো। অথচ আজকে জিয়া পরিবারকে নিয়ে মিথ্যে অপবাদ রাটানো ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। শুধু তাই নয় জিয়া পরিবারকে ধ্বংস করার জন্য বিভিন্ন প্রকার মিথ্যে মামলার মাধ্যমে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। কিন্তু শহীদ জিয়ার আদর্শের একজন সৈনিক বেঁচে থাকতে তা কখনোই হতে দেয়া হবে না।

বক্তারা আরো বলেন, দেশে এখন আর গণতন্ত্র নেই। মানুষ তার কথা বলার অধিকার হারিয়ে ফেলেছে। অবৈধ সরকার গণতন্ত্রের কথা বলে দেশে একদলীয় বাকশাল কায়েম করতে চেষ্ঠা চালাচ্ছে। আগামি দিনে দেশের গণতন্ত্র পূর্ণ:উদ্ধার এবং মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনতে বেগম খালেদা জিয়া যে আন্দোলনের ডাক দিবে, সে আন্দোলনে চাঁদপুর জেলা বিএনপির সকল নেতাকর্মী অতিতের ন্যায় ঝাপিয়ে পড়বে। সভায় বক্তারা গণতন্ত্র পূর্ণ:উদ্ধারের জন্য সকল নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দৃঢ় শপথ নেয়ার আহ্বান জানান।

এসময় জেলা বিএনপি এবং সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিনব্যাপী কর্মসূচির সূচনা করা হয়।

Related posts