November 20, 2018

লোক কারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসবের উদ্বোধন (ভিডিও)

রফিকুল ইসলাম রফিক, নারায়ণগঞ্জ ব্যুরোঃ নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনে মাসব্যাপি লোকজ উৎসব ও কারুশিল্প মেলা শুরু হয়েছে। চলবে আগামী ১৪ ফেব্রƒয়ারি পর্যন্ত। সোমবার দুপুরে মেলার উদ্বোধন করা হয়। মাসব্যাপী এ মেলায় থাকছে জারি-সারি ভাটিয়ালী, মুর্শীদি, মারফতি, হাসন রাজা ও লালনগীতিসহ বিভিন্ন অঞ্চলের লোক সংগীত। লোক কবিতা ও ছড়া পাঠের আসরও বসবে প্রতি সন্ধ্যায়।

সোনারগাঁওয়ে বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনের কারুমঞ্চে মাস ব্যাপি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সংস্কৃতিক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুর বলেন, শিল্পাচার্যের পরিকল্পানা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করছি। কারুকাজ না করে যদি তারা অন্য কাজ করত, তাহলে অনেক বেশী উর্পাজন করতে পারে। তাই অনেকে অন্য কাজে চলে যা যায়। ইতিহাস, ঐতিহ্য ও কৃষ্টি কালচারকে প্রতিষ্ঠিত করতে লোক ও কারু শিল্পীদের আর্থিক প্রনোদনা দিবে এবং প্রশিক্ষনের মাধ্যমে আরো নতুন নতুন শিল্পী সৃষ্টি করতে হবে।

ফাউন্ডেশনের পরিচালক রবীন্দ্র গোপের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব আকতারী মমতাজ, জেলা প্রশাসক রাব্বি মিয়া, নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ আব্দুল্লাহ আল কায়সার, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট শামছুল ইসলাম ভূইয়া।

ভিডিওঃ সংস্কৃতিক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নুরের বক্তব্য 

মাস ব্যাপি শুরু হওয়া মেলায় লোক ও কারু শিল্প মেলায় বিভিন্ন দেশের দর্শনার্থীরা আসে। মেলায় লোক ও কারু শিল্পীদের বেচা কেনায় চলবে না। তাই মেলার সার্থেই ঐতিয্য ধরে রাখতে শিল্পীদের আনা হয় বলে জানান ফাউন্ডেশনের পরিচালক রবীন্দ্র গোপ।

ভিডিওঃ সোনারগাঁও বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনের পরিচালক রবীন্দ্র গোপের বক্তব্য 

মেলায় পসরা সাজিয়ে বসেছে রাজশাহীর শখের হাড়ি, রংপুরের শতরঞ্জি, সোলা শিল্প, সোনারগাঁওয়ের নকশী কাথা, বাশ বেত শিল্পসহ মোট ৯২ টি স্টল। বাংলার ঐতিয্য দেখে মুগ্ধ মেলায় ঘুরতে আসা বিদেশি নাগরিকরাও ।
ভক্সপপ : বিদেশি নাগরিক

মেলা মানেই আনন্দ। যে কোনো বয়সেরই হোক। মেলায় হারিয়ে যাওয়া কনে দেখা, গায়ে হলুদ, জামাইকে পিঠা খাওয়ানো, কানামাছি, গোল্লাছুট, বৌছিসহ বিভিন্ন খেলাধুলা, গ্রাম্য সালিশ নামে লোক জীবন প্রদর্শন করা হয়। এ সব খেলায় অংশ নিতে পারায় আনন্দিত বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা।

 ভিডিওঃ মেলায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থী ও শিক্ষকের মন্তব্য 

উদ্বোধন শেষে সংগীত পরিবেশন করা হয়। সোনারগাঁওয়ে মাসব্যাপী এ উৎসবে প্রতিদিন শত শত দর্শনার্থীর উপস্থিতি ঘটবে বলে আয়োজকরা মনে করছেন। আর এতে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য বিকশিত হবে। #

ভিডিওঃ কিরণ চন্দ্র রায়ের সংগীত পরিবেশন

 

Related posts