February 16, 2019

লেবাননে দেশীয় আমেজে বিজয় দিবস উদযাপন

a

বাবু সাহা, লেবাননঃলেবাননে বাংলাদেশ দূতাবাসের হলরুমে ২৫শে ডিসেম্বর রবিবার বিকাল ৩.০০ ঘটিকায় ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনায় জাঁকজমকপূর্ণ পরিবেশে দেশীয় আমেজে উদযাপন করা হলো বাংলাদেশের ৪৫তম মহান বিজয় দিবসের উৎসব।

লেবাননে নিযুক্ত বাংলাদেশ সরকারের রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকারের সভাপতিত্বে এবং দূতাবাসের প্রথম সচিব ও দূতালয় প্রধান সায়েম আহমেদ এর পরিচালনায় আলোচনা সভা শুরু হয়। সভার শুরুতে পবিত্র কুরআন থেকে তেলাওয়াত পাঠ করেন সহ কনস্যুলার কর্মকর্তা আবুল হোসেন।পরে বাংলাদেশ এর স্বাধীনতা যুদ্ধে আত্মত্যাগকারী শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা সহ স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

এরপর রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহামুদ আলী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলমের বাণী পাঠ করে শোনান দূতাবাসের প্রথম সচিব সায়েম আহমেদ ও সহ কনস্যুলার কর্মকর্তা খোরশেদ আলম, আবুল হোসেন ও দিদারুল আলম।

b

পরে বিজয়ের তাৎপর্য ও শহীদদের স্মরণে দূতাবাসের হলরুমে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।এসময় লেবাননে অবস্থানরত অনেক প্রবাসী সাংবাদিক, কনস্যুলেটের কর্মকর্তারা, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ,  বাংলাদেশি কমিউনিটি ব্যক্তিসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।আলোচনা পর্বে অংশ নিয়ে প্রবাসী কমিউনিটির পক্ষে আলী আকবর মোল্লা, তপন ভৌমিক, আলী আশরাফ ভূঁইয়া বলেন, এই বিজয়ের ৪৫তম দিবসে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্ভাসিত হয়ে প্রবাসী বাংলাদেশিদের একাত্তরের চেতনায় জেগে ওঠার আহ্বান জানান।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাইকমিশনার আব্দুল মোতালেব সরকার বলেন , ‘মহান বিজয় দিবস জাতীয় জীবনে এক অনন্য গৌরবময় দিন। বিজয়ের এই মহান দিনে সেইসব অকুতোভয় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গভীর শ্রদ্ধা জানাই; যারা দেশের স্বাধীনতা অর্জনে জীবন উৎসর্গ করেছেন। তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সশ্রদ্ধ চিত্তে স্মরণ করেন।

তিনি বলেন আসুন. মহান বিজয় দিবসের দিনে আমরা সবাই মিলে শপথ নেই, দেশের ভাবমূর্তি উন্নয়নে আমরা সদা সচেষ্ট থাকব।একে অপরের পাশে দাঁড়িয়ে যে কোন সমস্যার ক্ষেত্রে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিব।আমরা সর্বপ্রকার দলাদলি থেকে বিরত থাকব।সন্ত্রাস বিরোধী কর্মকান্ডে আমরা নিজেরা যেমন সচেষ্ট থাকব, তেমনি আমাদের পরিবার, প্রতিবেশী ও সমাজকে সচেতন করার চেষ্টা করবো।দেশের উন্নয়নে আমরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবো।হাইকমিশনার বিজয় দিবসে প্রবাসী বাংলাদেশিদের আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান।

c

এর আগে ১৬ ডিসেম্বর শুক্রবার, স্থানীয় সময় সকাল ৯টায় লেবাননের রাজধানী বৈরুতের বাংলাদেশ দূতাবাসে জাতীয় সংগীতের সুরে সুরে পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠান সূচনা হয়।লেবাননের স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ সহ প্রবাসী বাংলাদেশী কমিউনিটির উপস্থিতিতে  লাল-সবুজের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন প্রথম সচিব সায়েম আহমেদ।রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোতালেব সরকার সরকারী কাজে লেবাননের বাইরে অবস্থান করায় মহান বিজয় দিবসের আলোচনা সভাটি ১৬ই ডিসেম্বরের পরিবর্তে ২৫শে ডিসেম্বরে অনুষ্টিত হয়।

আলোচনা সভা শেষে পাম্মা প্রোডাকশন এর ব্যানারে বাংলাদেশ থেকে আগত অতিথি  শিল্পী মুহিন খাঁন, শারমিন দিপু ও মম’রা হলভর্তি প্রবাসীদের উদ্দেশ্যে দেশীয় সংগীত পরিবেশন করেন।

Related posts