November 18, 2018

লেখা প্রকাশের ৮টি সাহিত্য পুরস্কার-২০১৬ পেলেন কবি ফয়জুন্নেসা মণি

আয়েশা আক্তার রুবি, বিশেষ প্রতিনিধি, ঢাকা: লেখা প্রকাশের ৮টি সাহিত্য পুরস্কার-২০১৬-এর সিলেট বিভাগে কবিতা সাহিত্যে অবদানের স্বিকৃতি স্বরূপ কবি-লেখিকা ফয়জুন্নেসা মণি’কে সন্মাননা ক্রেস্ট ও সন্মাননা সনদ দেয়া হয়। কবির হাতে সন্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বিশিষ্ট কলাম লেখক, সংগঠক ও উদীচী শিল্পগোষ্ঠীর সভাপতি কামাল লোহানী। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন- নটরডেম বিশ্ব বিদ্যালয়ের উপাচার্য ফাদার বেঞ্জামিন কস্তা সিএসসি, বিশিষ্ট সাহিত্য গবেষক ও সমালোচক সফিউদ্দিন আহমদসহ দেশবরেণ্য সাহিত্য ও শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিগণ। গত ২৬ আগস্ট ২০১৬ সকাল ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স কক্ষে সিলেট বিভাগে কবিতা সাহিত্যে বিশেষ অবদান রাখার জন্য ফয়জুন্নেসা মণি’কে লেখা প্রকাশের ৮টি সাহিত্য পুরষ্কার- নজরুল সাহিত্য পুরস্কার, জসিম উদ্দিন সাহিত্য পুরস্কার, ভাসানী সাহিত্য পুরস্কার, মাদার তেরেসা সাহিত্য পুরস্কার, চে-ওয়েভারা সাহিত্য পুরস্কার, শামছুল হক সাহিত্য পুরস্কার, শাহরিয়ার হাসান সাহিত্য পুরস্কার এবং শিশু কবি রকি সাহিত্য পুরস্কার-এর সন্মাননা ক্রেস্ট ও সন্মাননা সনদ দেয়া হয়েছে। উল্লেখ্য লেখা প্রকাশের উদ্যোগ গত তের বছর ধরে জাতীয় পর্যায়ে অবদানের জন্য সাহিত্যের বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে এবং ৮টি বিভাগে উদীয়মান, সম্ভাবনাময় লেখকদেকে এই পুরস্কার দিয়ে আসছেন লেখা প্রকাশে স্বতাধিকারি কবি বিপ্লব ফারুক।খবর বাপসনিঊজ।
ফয়জুন্নেসা মণি- লিখছেন ছোটবেলা থেকেই। স্কুল জীবন থেকেই তিনি কবিতা লিখতে শুরু করেন। লেখার প্রধান বিষয় কবিতা ও ছোট গল্প। প্রথম কাব্যগ্রন্থ- ‘নিঃসঙ্গতা মুক্তির ছাড়পত্র’ প্রকাশিত হয় ২০০৩ সালে কলেজ জীবনে । পেশাদার হিসেবে শিক্ষকতা পেশায় দায়িত্ব পালন করেন ঢাকার বনশ্রীতে অবস্থিত আব্দুর রাজ্জাক স্কুল অ্যান্ড কলেজে। প্রদায়ক হিসেবে লিখেছেন দৈনিক বণিকবার্তা, দৈনিক বর্তমান, দৈনিক বাংলাদেশ সময়, কালেরকন্ঠ, দৈনিক নয়াদিগন্ত, দৈনিক ডেসটিনিসহ বিভিন্ন পত্রিকায়। শিশু-কিশোরদের পত্রিকা মাসিক ‘টইটম্বুর’-এর নিয়মিত লেখক। সাহিত্য বিষয়ক লেখা প্রকাশিত হয়েছে দৈনিক প্রথম আলো’র বন্ধুসভায়, সাপ্তাহিক এখন, দৈনিক জাহান (ময়মনসিংহ), মাসিক শিক্ষাবিচিত্রা, বিভিন্ন সাহিত্য ম্যাগাজিনসহ অনলাইন নিউজ পোর্টালে। কবি ফয়জুন্নেসা মণি’র প্রকাশিত অন্যান্য বইগুলো হচ্ছে- ‘চুপিচুপি’, ‘গৃহসজ্জার কলাকৌশল’, ‘জীবন সাজাতে-জীবন রাঙাতে’, ‘জীবনে বিজ্ঞান’, ‘জীবন সূত্র’ ইত্যাদি।
কবি ফয়জুন্নেসা মণি রাষ্ট্রবিজ্ঞানে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন সরকারী তিতুমির কলেজ, ঢাকা থেকে। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি প্রাবন্ধিক ও কলাম লেখক এস এম মুকুল-এর সহধর্মিনী।
ফয়জুন্নেসা মণির প্রথম কাব্যগ্রন্থ নিঃসঙ্গতা মুক্তির ছাড়পত্র (২০০৩ সালে প্রকাশিত)-এর জন্য কবিকে এই সন্মাননা পুরস্কার প্রদান করা হয়েছে। কবি ফয়জুন্নেসা মণি’র জš§ ১৭ মে সুনামগঞ্জের নয়াহালট গ্রামে নানার বাড়ীতে। তিনি বাবা আব্দুল হাকিম অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোহনঞ্জ পাইলট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, মা জিনাতুন্নেসা খানমের একমাত্র কন্যা। কবি ফয়জুন্নেসা মণি ছোটবেলা থেকেই সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত। তিনি জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ/১৯৯৬-এ দেশাত্ববোধক গানে এবং রবীন্দ্র সংগীতে ধর্মপাশা, সুনামগঞ্জ থেকে প্রথম স্থান অর্জন করেন। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ/১৯৯৮-এ লোক সংগীতে ধর্মপাশা, সুনামগঞ্জ থেকে প্রথম স্থান অর্জন করেন। জাতীয় শিশু পুরস্কার প্রতিযোগিতা/১৯৯৯-এ ধর্মপাশা, সুনামগঞ্জ থেকে দেশাত্ববোধক গানে ও লোক সংগীতে প্রথম স্থান এবং রবীন্দ্র সংগীতে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেন। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ/২০০০-এ ধর্মপাশা, সুনামগঞ্জ থেকে রবীন্দ্র সংগীতে প্রথম স্থান অর্জন করেন। জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ/২০০১-এ দেশাত্ববোধক গানে ধর্মপাশা, সুনামগঞ্জ থেকে প্রথম স্থান, জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ/২০০২-এ উচ্চাঙ্গ সংগীতে প্রথম স্থান, জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ/২০০২-এ রবীন্দ্র সংগীতে প্রথম স্থান এবং ১৪০০ সাল উদযাপন উপলক্ষ্যে বিচিত্রা অনুষ্ঠানে উল্লেখযোগ্য স্থান অর্জন।

Related posts