March 23, 2019

লিভারপুর ত্রিফলায় বিদ্ধ ক্রিস্টাল প্যালেস

রোগটা গেল মৌসুমে ছিল লিভারপুলের। নিজেরা তিনটা কিংবা চারটা গোল দিয়ে খেয়ে গেছে তিনটি। তিন গোল দেওয়ার পর চারটি খেয়ে ম্যাচও হেরেছে লিভারপুল। ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে ঘরের মাঠে সেই রোগে আবারও ধরল অল রেডসদের। তবে লিভারপুল ত্রিফলার সঙ্গে শেষ পর্যন্ত পারেনি প্যালেস। হারতে হয় ৪-৩ ব্যবধানে।

গোল খাওয়া এই রোগ সারাতে লিভারপুল কোপ জার্গেন ক্লপ টাকার কাড়ি খরচা করে ভ্যান ডাইক, ফ্যাবিনহো, অ্যালিসনদের দলে ভিড়িয়েছে। রোগ অবশ্য কেটেও গিয়েছিল লিভারপুলের। চলতি মৌসুমে লিগে পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষ থাকা। চ্যাম্পিয়ন লিগের শেষ ষোলোয় কঠিন গ্রুপ থেকে জায়গা করে নেওয়া তার প্রমাণ। কিন্তু আবার সেই রোগ হতাশ না করে পারে না লিভারপুল কোচকে। তাও আবার অল রেডসরা খেলেছে ঘরের মাঠে।

ম্যাচের প্রথমার্ধে গোল খেয়ে পিছিয়ে পড়ে লিভারপুল। ম্যাচের ৩৪ মিনিটে গোল দেয় ক্রিস্টাল প্যালেস। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ৪৬ মিনিটে গোল করে দলকে সমতায় ফেরায় মোহামেদ সালাহ। এরপর ৫৩ মিনিটে গোল দিয়ে অলরেডসরা জানান দেয় ছন্দে ফিরেছ তারা। গোল করেন ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকার ফিরমিনো। তবে ৬৫ মিনিটে গোল শোধ দিয়ে আবার ম্যাচ জমিয়ে দেয় প্যালেস।

ম্যাচের ৭৫ মিনিটে সালাহ তার দ্বিতীয় গোল করে দলকে এগিয়ে নেন। এরপর অতিরিক্ত সময়ে গোল করেন লিভারপুলের আরেক ফলা সাদিও মানে। ত্রিফলার গোলে ৪-২ ব্যবধানে এগিয়ে যায় লিভারপুল। ম্যাচ তখন শেষ বাঁশি বাজার অপেক্ষায়। বড় জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে চলেছে লিভারপুল। টিভি কিংবা মাঠের দর্শকও কিছু কিুছু হয়তো মাঠ ছাড়তে শুরু করেছেন। এমন সময় ম্যাচের ৯৫ মিনিটে গোল করে ব্যবধান ৪-৩ করে ফেলে ক্রিস্টাল প্যালেস। লিভারপুলকে জয়ের সঙ্গে কপালে একটু ভাঁজ নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়।

Related posts