February 16, 2019

রোয়ানু’র প্রভাব কাপাসিয়ায়, সবজির দাম কমায় কৃষকের মাথায় হাত

নূরুল আমীন সিকদার
গাজীপুর প্রতিনিধিঃ   
রোয়ানু’র প্রভাবে সারাদেশে নিন্ম চাপ ও ভারী বৃষ্টিতে কাপাসিয়ার শীতলক্ষা নদীতে আকস্মিক কচুরী পানায় নৌকা চলাচল ব্যাহত রয়েছে। স্থানীয় কৃষকের উৎপাদিত সবজি ও ফলফলাদী দাম কমায় কৃষকের মাথায় হাত পড়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, গত ৩ তিন ঘুর্নিঝড় রোয়ানুর প্রভাবে শীতলক্ষা নদীতে ধীরে ধীরে কচুরী পানা আসতে থাকে। গত ২১ মে সকাল থেকে নদীতে কয়েক মাইল জোরে কচুরীপানায় ভরে যায়। নদীর বেশির ভাগ অংশ দখল করে নেয় কচুরীপানার স্তুপ। এতে খেয়াঘাটের নৌকা ও নৌযান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে।

খেয়াঘাটে কর্মরত একাধিক মাঝি জানান, আমরা কোনো ভাবেই কাজ করতে পারছিনা। এমনিতে জন প্রতি একবার পারাপারে মাত্র ২ টাকা।  সারাদিনে অন্যান্য দিন ২০/২৫ বার পারাপার করলেও আজ ২/৩ বার পারাপার করতে পারছি। আজ রোজগার নেই বললেই চলে। সমিতির কিস্তি ও সংসারের খরচ জোগাতে কাজ করি কিন্তু গত তিনদিন ধওে তেমন কোনো কামাই নেই বলে কোথাও টাকা দিতে পারছিনা।

ঝড়ের প্রভাবে কাপাসিয়া বাজারে মৌসুমী ফল ফলাদী আম, জাম, কাঁঠাল লিচু,  পেয়ারা, কলা, লেবু, আনারস, শষা, কাঁচামরিচ, ঝিঙগা, ডাটা, পটল , কচু, শাক, মিষ্টি কুমড়াসহ বিভিন্ন কাঁচামালের দাম পড়ে যাওয়ায় কৃষকের মাথায় হাত পড়েছে।

এদিকে ভারী বৃষ্টি হওয়ায় কাপাসিয়ার উত্তরা লে শীতলক্ষা নদীর তীরে বিভিন্ন স্থানে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। বছরের পর বছর বালু উত্তোলনের ফলে শীতলক্ষার নদীর তীরে বসবাসকারীরা হুমকীর মুখে রয়েছে। স্থানীয় কৃষক ছিদ্দিকুর রহমান ফকির, নারী নেত্রী অ্যাডভোকেট ফেরদৌসীসহ এলাকাবাসী জানান, অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের ফলে জুনিয়া, কাপাসিয়া সদর, আদালত পাড়া, সাফাইশ্রী, রায়নন্দা, কলেজ পাড়া, কাজী পাড়া সহ বিভিন্ন স্থানে নদী ভাঙ্গন ও দেবে যাওয়ায় আমরা পরিবার পরিজন নিয়ে মারাত্বক ভাবে হুমকির শিকার। জানা যায়, বালু উত্তোলনের ফলে কয়েকদিন পূর্বে নদীর পানিতে না জানা গভীর গর্তে পড়ে রায়নন্দা, বলদা ও পানবরাইদ গ্রামের তিনটি শিশু প্রাণ হারায়।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/২১ মে ২০১৬

Related posts