September 24, 2018

রোহিঙ্গা উদ্বাস্তু শিবিরে আগুন, ৪শ বাড়ি পুড়ে ছাই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে মঙ্গলবার সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের এক উদ্বাস্তু শিবিরে আগুনে লেগে চার শতাধিক ঘর-বাড়ি পুড়ে গেছে। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১৪ জন। আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত শিবিরটিতে ২ হাজারের মত উদ্বাস্তু বসবাস করছিল।

মঙ্গলবার সকালে রাখাইন রাজ্যের রাজধানী সিতুই-র বাওয়াদুপা শিবিরে আগুন ধরে যায়। এ সময় ঘন ধোঁয়ায় ছেয়ে যায় চারদিক। এতে আশ্রয়কেন্দ্রের কাঠের তৈরি শত শত বাড়ি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বলছে, শিবিরের একটি ঘরে রান্না করার সময় স্টোভ থেকে ওই আগুনের সূত্রপাত। শুকনো মৌসুমে প্রবল বাতাসের কারণে অল্প সময়ের মধ্যেই দ্রুত আগুন গোটা শিবিরে ছড়িয়ে পড়ে।

রাখাইনের উদ্বাস্তু শিবিরগুলোতে বসবাসকারী রোহিঙ্গাদের সংখ্যা এক লাখ ৪০ হাজার। ২০১২ সালে দেশটিতে সংখ্যাগুরু বৌদ্ধদের সঙ্গে ভয়াবহ সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার পর থেকে রাখাইনের গৃহহীন রোহিঙ্গারা উদ্বাস্তু শিবিরগুলোতে বসবাস করে আসছে। কয়েক বছর কেটে যাওয়ার  পরেও তাদের ঘরবাড়িতে ফিরিয়ে নেয়ার কোনো উদ্যোগ নেয়নি স্থানীয় প্রশাসন।

এ সম্পর্কে জাতিসংঘের ‘অফিস ফর কোঅর্ডিনেশন ফর হিউমেনিটারিয়ান অ্যাফেয়ার্স (ওসিএইচএ) কার্যালয় থেকে জানান হয়েছে, আগুনে ৪৪০টি ঘর পুড়ে গেছে। এতে আশ্রয়হীন হয়েছে প্রায় দু হাজারের মত মানুষ। এসব উদ্বাস্তুদের বিকল্প আশ্রয়ের ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলেও তারা জানিয়েছে।

Related posts