September 21, 2018

রেকর্ডটা গর্বিত হওয়ার নয়; লজ্জার!

স্পোর্টস ডেস্কঃ চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ভারতীয় স্পিনাররা দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যানদের জীবন যেভাবে দুর্বিষহ করে তোলেছেন তাতে করে নিশ্চিতভাবে এই সিরিজ ভুলে যেতে চাইবে প্রোটিয়া শিবির। ইতোমধ্যেই ২-০ ব্যবধানে সিরিজ হারতে বসেছে হাশিম আমলার দল। দিল্লি টেস্টের যেই অবস্থা তাতে করে হার ভিন্ন ফলাফল দেখছে না দক্ষিণ আফ্রিকা।

চলমান ভারত সফরে এক রেকর্ড গড়লো প্রোটিয়ারা। ১৯১৩-১৪ সালের পর এই প্রথম কোনো সিরিজে দক্ষিণ আফ্রিকার ইনিংস পাঁচবার ২০০’র কম রানে গুটিয়ে গেলো। তবে এই রেকর্ড ‘গর্বিত’ হওয়ার নয়; লজ্জার।

১৯১৩-১৪ মৌসুমে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে পাঁচবার ২০০’র কম রানে অলআউট হয় দক্ষিণ আফ্রিকা। ১০২ বছর পর প্রোটিয়াদের সেই ‘লজ্জা’ উপহার দেয় বিরাট কোহলির নেতৃত্বাধীন ভারত। শুক্রবার দিল্লি টেস্টের দ্বিতীয় দিন মাত্র ১২১ রানে গুটিয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা। চার ম্যাচ সিরিজে এই নিয়ে পাঁচবার ২০০’র কম রানে অলআউট হয় প্রোটিয়া শিবির। দিল্লির টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে সেই সংখ্যাটা বেড়ে ছয়ে উন্নীত হতে পারে।

চার ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টে মোহালিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপর্যয়ের শুরু। প্রথম ইনিংসে ভারতীয় ‘স্পিন ত্রি-রত্ন’ রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রবিন্দ্র জাদেজা ও অমিত মিশ্রর বোলিং তোপে পড়ে মাত্র ১৮৪ রানে গুটিয়ে যায় প্রোটিয়ারা। অশ্বিন পাঁচটি, জাদেজা তিনটি এবং মিশ্র নেন দুটি উইকেট।

দ্বিতীয় ইনিংসে আরো বড় ‘লজ্জা’র মুখে পড়ে হাশিম আমলার দল। এবার প্রোটিয়ারা গুটিয়ে যায় মাত্র ১০৯ রানে। ভারতের নায়ক সেই তিনজন- রবিচন্দ্রন অশ্বিন, রবিন্দ্র জাদেজা ও অমিত মিশ্র। এবার জাদেজা নেন পাঁচ উইকেট আর অশ্বিন নেন তিনটি। সমান একটি করে উইকেট নেন মিশ্র ও বরুন অ্যারন।

বৃষ্টিবিঘ্নিত ব্যাঙ্গালোর টেস্টে দুই ইনিংস পর ২০০ রানের মুখ দেখে দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম ইনিংসে ২১৪ রান সংগ্রহ করে অতিথি দলটি। টানা চারদিন বৃষ্টির কারণে ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয়। অশ্বিন ও জাদেজা সমান চারটি করে উইকেট লাভ করেন। বরুন অ্যারন নেন একটি উইকেট।

নাগপুর টেস্টে আরো মাথা নিচু করে মাঠ ছাড়তে হয় দক্ষিণ আফ্রিকাকে। এবার প্রথম ইনিংসে প্রোটিয়া শিবির গুটিয়ে যায় মাত্র ৭৯ রানে। নায়কের ভূমিকায় সেই স্পিন ত্রি-রত্ন। পুরো ১০টি উইকেটই ভাগাভাগি করেন নেন অশ্বিন, জাদেজা ও মিশ্র। অশ্বিন পাঁচটি, জাদেজা চারটি ও মিশ্র নেন একটি উইকেট।

দ্বিতীয় ইনিংসে ধুঁকতে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকা ১৮৫ রানে গুটিয়ে গিয়ে ১২৪ রানে হেরে বসে ভারতের কাছে। এবারও নায়ক অশ্বিন; পাশ্বনায়কের ভূমিকায় মিশ্র। অশ্বিন সাতটি এবং মিশ্র নেন তিনটি উইকেট।

দিল্লি টেস্টের পিচ বদলালেও দক্ষিণ আফ্রিকার ভাগ্য বদল হয়নি। দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায় প্রথম ইনিংসে মাত্র ১২১ রানে গুটিয়ে গিয়ে পরাজয়ের প্রহর গুনছে হাশিম আমলার দল। এই প্রথম ভারতীয় পেসাররা চলতি সিরিজের কোনো ইনিংসে তিনটি উইকেট লাভ করলেন। উমেশ যাদব দুটি ও বরুণ অ্যারন নেন একটি উইকেট। জাজেদা পাঁচটি এবং অশ্বিন নেন দুটি উইকেট। সব মিলিয়ে ভুলে যাওয়া এক সিরিজই শেষ করতে যাচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts