November 14, 2018

রূপগঞ্জে ৫ লাখ ভোটারের হাতে ভাগ্য নির্ধারন আজ

 

রফিকুল ইসলাম রফিক,নারায়ণগঞ্জঃ  সকল জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত হচ্ছে আজ সদর-রূপগঞ্জ উপজেলার ১১ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। বিজয়ের প্রত্যাশায় চেয়ারম্যান, মেম্বার ও সংরক্ষিত নারী মেম্বার পদে মোট ৫১১ জন প্রার্থী এখন অপেক্ষার প্রহর গুণলেও সোয়া ৫ লাখ ভোটারের হাতে তাদের ভাগ্য নির্ধারন করছে জনপ্রতিনিধি হওয়ার।

যার জন্যে প্রত্যেকটি ভোট কেন্দ্র জুড়ে নিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে জেলা নির্বাচন কমিশন। যেখানে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ ও আনসার সদস্য ব্যাতীতও জেলা প্রশাসনের স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করছেন দু’টি উপজেলায় দু’জন জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেটসহ ৮ জন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট।

সদর উপজেলা নির্বাচন কমিশনার রশিদ মিঞা জানান, সদর উপজেলার ৬ টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও কাশীপুর, বক্তাবলী ও আলীরটেক ইউনিয়নে ইতিমধ্যেই বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায়  এই ইউনিয়ন গুলোতে শুধুমাত্র মেম্বার ও সংরক্ষিত নারী মেম্বার পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আর বাকী কুতুবপুর, গোগনগর ও এনায়েতনগর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান, মেম্বার ও সংরক্ষিত নারী মেম্বার পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এই ইউনিয়ন গুলোতে ১১ জন চেয়ারম্যান, ৬০ জন সংরক্ষিত নারী মেম্বার ও ২১৬ জন পুরুষ মেম্বার প্রার্থী প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।

সদর উপজেলাধীন ৬ টি ইউনিয়নে ১৩৬ টি ভোট কেন্দ্র রয়েছে। মোট ভোটার প্রায় ৩ লাখ ৪০ হাজার।

গোগনগর ইউনিয়নে
গোগনগর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ২ জন। এরা হলেন, আওয়ামীলীগ চেয়ারম্যান প্রার্থী জসিম উদ্দিন (নৌকা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী নওশেদ আলী (মোটর সাইকেল)। সংরক্ষিত মহিলা আসনে (মহিলা মেম্বার) ৭ জন এবং পুরুষ মেম্বার প্রাথী ২৯ জন প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।
এনায়েতনগর ইউনিয়ন

এনায়েতনগর ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করছেন ৫ জন। এরা হলেন,  আওয়ামীলীগের প্রার্থী আসাদুজ্জামান (নৌকা) প্রতীক, জাতীয় পার্টির প্রার্থী কামরুল ইসলাম তুহিন (লাঙ্গল), বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলন প্রার্থী আব্দুস সালাম (হাত পাখা), বিএনপি প্রার্থী এস এম মাহমুদুল হক (ধানের শীষ)। এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৭ জন মহিলা মেম্বার প্রার্থী এবং ৩৫ জন পুরুষ মেম্বার প্রার্থী রয়েছেন।

কুতুবপুর ইউনিয়ন
কুতুবপুর ইউনিয়নে ৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। এরা হলেন, আওয়ামীলীগের প্রার্থী গোলাম রসূল (নৌকা), সতন্ত্র প্রার্থী মনিরুল আলম সেন্টু (আনারস), বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলন প্রার্থী সৈয়দ আলী মোস্তফা (হাত পাখা) এবং জাসদ প্রার্থী এস এম কবির (মই)। তাছাড়া সংরক্ষিত মহিলা আসনে (মহিলা মেম্বার) ১৪ জন এবং পুরুষ মেম্বার ৫৭ জন পওতিদ্বন্দীত করছেন।

অপরদিকে, কাশিপুর ইউনিয়নে ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম. সাইফুল্লাহ বাদল, বক্তাবলীতে ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব এম শওকত আলী ও আলীরটেক ইউনিয়নে আলহাজ্ব মতিউর রহমান মতি আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় এই তিন ইউনিয়নে শুধু মাত্র পুরুষ ও মহিলা মেম্বার পদে নির্বাচন হচ্ছে।

কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদে সংরক্ষিত মহিলা আসনে (মহিলা মেম্বার) ১১জন এবং পুরুষ মেম্বার প্রার্থী রয়েছেন ৩৪ জন।

বক্তবলী ইউনিয়নে সংরক্ষিত মহিলা আসনে (মহিলা মেম্বার) ১২ জন এবং পুরুষ মেম্বার ৩৫ জন প্রতীক পেয়েছেন।

আলীরটেক ইউনিয়নে সংরক্ষিত মহিলা আসনে (মহিলা মেম্বার) ৯ জন এবং পুরুষ মেম্বার প্রার্থী ২৬ জন।

রূপগঞ্জ উপজেলাধীন ৫ টি ইউনিয়ন পরিষদে ৫৮ টি ভোট কেন্দ্র রয়েছে। মোট ভোটার প্রায় পৌনে দুই লাখ।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. ওমর ফারুক জানান, রূপগঞ্জের ৫ ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরমধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় উপজেলার কায়েতপাড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে যাওয়ায় চেয়ারম্যান হিসেবে প্রতিদ্বন্দীতা হচ্ছে ৪ ইউনিয়নে। এর মধ্যে ১৬ চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ১৬০ জন সাধারণ সদস্য ও ৪৮ জন সংরক্ষিত নারী সদস্য নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।

কায়েতপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী  আলহাজ্ব মো: রফিকুল ইসলাম বিনাপ্রতিদ্বন্দীতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় উক্ত ইউনিয়নে শুধুমাত্র মেম্বার ও নারী মেম্বার পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, রূপগঞ্জ উপজেলার ৫ টি ইউনিয়নের মধ্যে কায়েতপাড়ায় বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ায় এখানে ৪ টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান, মেম্বার ও সংরক্ষিত নারী মেম্বার পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এরা হলেন- গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে মঞ্জুর হোসেন ভূঁইয়া (নৌকা), গোলাম মোস্তফা (ধানের শীষ) ও ফারুক মিয়া (আনারস) প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। ভোলাব ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আবুল হোসেন খান (নৌকা), আলমগীর হোসেন টিটো (ধানের শীষ), ইঞ্জিনিয়ার সামসুদ্দিন আহমেদ (মোটরসাইকেল), মোতাহার হোসেন চৌধুরী (চশমা), ওমর ফারুক নয়ন (আনারস) এবং ইউছুফ হোসেন সানী (অটোরিকশা) প্রতীক নিয়ে লড়াই করছেন।

ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ব্যারিস্টার আরিফুল হক ভূইয়া (নৌকা) ও আব্বাস উদ্দিন ভুঁইয়া (ধানের শীষ) প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন।

মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তোফায়েল আহমেদ আলমাছ (নৌকা), আবদুল মান্নান পারভেজ (ধানের শীষ), আলহাজ বরকতউল্লাহ (আনারস), ভিপি মনির (চশমা), আবদুল জব্বার (অটোরিকশা) প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/২২ এপ্রিল ২০১৬

Related posts