November 21, 2018

রূপগঞ্জে শিশু হত্যার অভিযোগে মসজিদের মুয়াজ্জিন গ্রেপ্তার!

রফিকুল ইসলাম রফিক      
নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে একটি মসজিদের মুয়াজ্জিনের বিরুদ্ধে সুমাইয়া নামের ৮ বছরের এক শিশুকে পানিতে ফেলে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার সকাল ছয়টার দিকে শিশু সুমাইয়া ও পাশের বাড়ির তামান্না উপজেলার বরপা এলাকার সুতালারা মোল্লা বাড়ি জামে মসজিদে আরবী পড়ার জন্য যায়। পড়া শেষে তামান্না বাসায় ফিরলেও সুমাইয়া বাসায় ফেরেনি। তার পর থেকে সে নিখোঁজ ছিলো। তার খোঁজ না পেয়ে পুলিশকে জানালে ওই মসজিদের মুয়াজ্জিন হাফেজ জহিরুল ইসলামকে আটক করে। জিজ্ঞাসাবাদে তার দেখানো মসজিদের পাশের ডোবা থেকে শিশু সুমাইয়ার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত শিশু সুমাইয়ার চাচা দ্বীন ইসলাম জানিয়েছেন, তার ভাতিজী মসজিদে আরবি পড়তে গেলে পরে ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, শিশুর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত মসজিদের মুয়াজ্জিন হাফেজ মো: জহিরুল ইসলাম জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে, আরবী পড়া শেষে মসজিদ ঝাড়ু দেয়ার জন্য সুমাইয়াকে রাখা হয়। এসময় শিশু সুমাইয়া মসজিদের সিড়ি ঝাড়–দেয়ার সময় পড়ে গিয়ে আহত হয়।

বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকাবাসি তাকে মারধর করতে পারে এই ভয়ে আহত সুমাইয়াকে তুলে নিয়ে সে মসজিদের পাশের ডোবায় ফেলে দেয়। নিহত শিশুকে হত্যার আগে ধর্ষণ করা হয়েছ কীনা তা ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করা যাবে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/২১ মে ২০১৬

Related posts