November 13, 2018

রাবি শিক্ষক হত্যাঃ সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

ইমদাদুল হক সোহাগ,রাবি প্রতিনিধিঃ  রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের প্রফেসর রেজাউল করিম সিদ্দিকীর হত্যার বিচারের দাবিতে তৃতীয় দিনের চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবে প্রধান ফটক অবরোধ করে আন্দোলন করছে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগ, প্রগতিশীল ছাত্র জোট, কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোট এবং সাধারণ শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদী র‌্যালী বের করে ক্যাম্পাসের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক অবরোধ করে আন্দোলন করে। এসময় ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। একই দাবিতে বিশ্বিদ্যালয় শাখা একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি মানব বন্ধন করে।

জানা যায়, ইংরেজী বিভাগের শিক্ষক রেজাউল করিম সিদ্দিকীর হত্যাকান্ডের বিচারের দাবিতে প্রথম থেকেই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, ইংরেজী বিভাগ, প্রগতিশীল ছাত্র জোট, কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোট এবং সাধারণ শিক্ষার্থীরা আন্দোলন করে আসছিল। গতকাল সোমবার শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন শেষে আজ মঙ্গলবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য সকল কর্মসূচী স্থগিত করলেও ইংরেজী বিভাগসহ অন্যান প্রগতিশীল ছাত্রসংগঠনগুলো সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিয়ে আন্দোলন করে। সাধারণ শিক্ষার্থীদের স্বত:স্ফূর্ত অংশগ্রহনে পুরো ক্যাম্পাম ফুঁসে উঠেছে।

এদিকে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা হাতে প্লাকার্ড ও বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে। ‘আমার শিক্ষক হত্যা কেন, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘শিক্ষা, সন্ত্রাস-এক সাথে চলে না’, ‘শিক্ষক হত্যার বিচার চাই’ ইত্যাদি প্রতিবাদী স্লোগানে র‌্যালী করে। র‌্যালী শেষে শিক্ষার্থীরা সাড়ে ১১টা থেকে পৌনে ১টা পর্যন্ত প্রধান ফটক অবরোধ করে। দীর্ঘ সময় অবরোধের কারণে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কে তীব্র যানজটের কারণে জনসাধারণের মধ্যে দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়। এই অবেরোধের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১২টারে বাস  ছেড়ে যায়নি।

বিচারের দাবিতে বেলা ১১টার দিকে সিনেট ভবনের সামনে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি মানব বন্ধন করে।

উল্লেখ্য যে, গত শনিবার সকাল পৌনে ৮টায় রাজশাহীর শালবাগান এলাকায় নিজ বাসা থেকে একটু দূরে অধ্যাপক এ এফ এম রেজাউল করিমকে কুপিয়ে হত্যা করে ফেলে রেখে যায় দুর্বৃত্তরা।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/২৫ এপ্রিল ২০১৬

Related posts