September 26, 2018

রাজাপুরের ৬ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ

মোঃ আঃ রহিম রেজা।ঝালকাঠিঃ ঝালকাঠির রাজাপুরের আঙ্গারিয়া-কৈবর্তখালি সড়কের দক্ষিণ আংগারিয়ার খানের বাড়ির সামনের খালের ওপরের ব্রীজটির একপাশ ভেঙ্গে বেহাল অবস্থা দীর্ঘদিন। ওই ব্রীজ থেকে উপজেলার কৈবর্তখালি, নতুনহাট, আলগি ও গাজিবাড়ি পর্যন্ত প্রায় ৪ কিলোমিটার সড়কটিরও সকল স্থান জুড়ে কার্পেটিং উঠে গিয়ে খানাখন্দের একাকার হয়ে গেছে। রাজাপুর-কাঁঠালিয়া সংযোগ সড়কের দক্ষিণ আঙ্গারিয়া এবং রাজাপুর-ভান্ডারিয়া আ লিক মহাসড়কের গাজিবাড়ি এলাকার সংযোগ সড়ক এটি।

আঙ্গারিয়া গ্রামের মিজানুর রহমান, বেলায়েত খান ও মেম্বর জাহাঙ্গির খানসহ এলাকার একাধিক স্থানীয়রা অভিযোগ করে জানান, ব্রীজটি দিয়ে আংগারিয়া, আলগী, নতুনহাট ও কৈবর্তখালিসহ কমপক্ষে ৬ গ্রামের প্রায় সহস্রাধিক পরিবারের সদস্যরা চলাফেরা করছে। ব্রীজ থেকে পশ্চিমে মাত্র দু’শ গজের মাথায় আলগী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এ ব্রীজ দিয়ে পারাপার হয়ে আংগারিয়া গ্রামের শতাধিক কোমলমতি শিশুরা লেখাপড়া করছে। প্রায় ১৫ বছর আগে নির্মিত ব্রীজটির পূর্ব পাড়ের গাইড ওয়াল কয়েক মাস আগে থেকে দেবে গিয়ে অর্ধ বিচ্ছিন্ন হয়ে ঝুকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে।

যেকোন সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। বর্তমানে ভাঙ্গা অংশ মেরামত করলে ব্রীজটি সম্পুর্ন ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করা সম্ভব বলে স্থানীয়দের ভাষ্য। এ ছাড়া ওই ব্রীজ থেকে উপজেলার কৈবর্তখালি গ্রামের নতুনহাট পর্যন্ত প্রায় ৪ কিলোমিটার সড়কটিতেও প্রায় গত ১৫ বছর আগে কার্পেটিং এর কাজ করা হয়েছিল। তারপর থেকে অদ্যবদি কোন কাজ করা হয়নি। ফলে সড়কটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। জানতে চাইলে উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলী মোঃ লুৎফর রহমান জানান, আসলেই ব্রীজটি ও রাস্তাটির অবস্থা বর্তমানে খুবই খারাপ। ওই ব্রীজ ও রাস্তাটি সংস্কারের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে কয়েকবার ষ্টিমেট করে পাঠানো হয়েছে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts