September 26, 2018

যে কারনে ২ লক্ষ বাংলাদেশীদের ফেসবুক আইডি বন্ধ করা হয়েছে

41

ফেসবুকের নীতিমালায় আবারো পরিবর্তন,এবার কোন হ্যাকিং এর দ্বারা ফেসবুক আইডি বন্ধ হচ্ছে না,মার্ক জাকারবার্গের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ফেসবুক ব্যাবহারকারীদের ভিতরে চিরুনি অভিযান চলছে এটা শুধু বাংলাদেশে নয় সমগ্র বিশ্বের ফেসবুক ব্যাবহারকারীদের মধ্য চলছে। তবে তুলনামূলকভাবে বাংলাদেশ,ভারত এবং নাইজেরিয়ার ফেসবুক ব্যাবহারকারীদের বেশী আইডি বন্ধ হচ্ছে।

কিছুদিন আগে ফেসবুক কতৃপক্ষ এক ব্লক পোষ্টের মাধ্যমে জানিয়েছিলো কোন ব্যাক্তি একের অধিক ফেসবুক আইডি ব্যাবহার করতে পারবে না। একই পিসি কিংবা মোবাইল ফোনে একটি ফেসবুক আইডি লগইন করতে হবে অন্যথায় ভেরিফিকেশন চাওয়া হবে। সবাইকে ফেসবুকে প্রকৃত নাম ব্যাবহার করতে হবে। যেমনঃ একলা পথিক,আমি নিল আকাশ,ছায়া বিথি,ছায়া মানবি,কষ্টের পাথর, অবুঝ বালক,জাকারবার্গের খালাতো ভাই এই সব নামে আইডি থাকবে না। ফেসবুক কতৃপক্ষ সবাইকে সব সময় যেকোন অনাকাঙ্ক্ষিত কাজ থেকে বিরত রাখতে সবসময় সঠিক উপায়ে ফেসবুক ব্যাবহারের পরামর্শ দিয়ে আসছে।

এবারে আসা যাক মুল আলোচনায়,যেসব কারণে ফেসবুক কতৃপক্ষ আইডি বন্ধ করছে সেটা একনজরে দেখে নিনঃ আপনার আইডি যদি দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকে।

আপনার যদি ছদ্মনাম থাকে,আপনার আইডি তে যদি একাধিক রিপোর্ট থাকে,আপনার যদি কোন ফেইক আইডি থাকে তাহলে ফেসবুক রোবটের মাধ্যমে চেক তারপর সিগন্যাল এরপর সরাসরি বন্ধ। আপনি যদি অনবরত ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠাতে থাকেন, একইসাথে অনেকগুলো গ্রপে জয়েন করার চেষ্টা করেন,এছাড়াও বহুবিধ কারন আছে ফেসবুক আইডি বন্ধ হবার। এই অনাকাঙ্ক্ষিত ঝামেলা এড়ানোর জন্য যথাসম্ভব আপনার ফেসবুক আইডি ভোটার আইডি অথবা পাসপোর্ট অনুযায়ী করুন, একই নামে একই পিসি কিংবা মোবাইল দিয়ে একাধিক ফেসবুক ব্যবহার করবেন না, রিপোর্ট পড়তে পারে আপনার আইডি তে এমন কোন কাজ করবেন না।

যদি কোন সময় আপনার আইডি তে ভেরিফিকেশন চাই তাহলে আপনার পাসপোর্ট কিংবা ভোটার আইডি কার্ড আপলোড করে দিন. ফেসবুক তাদের এই ব্লক পোষ্টের মাধ্যমে আরো জানিয়েছেন গত ডিসেম্বর মাস থেকে এই পর্যন্ত বাইশ লক্ষ ফেইসবুক আইডি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এর মধ্য সর্বাধিক ভারতে ছয় লক্ষ এবং বাংলাদেশে প্রাণ দুই লক্ষ আইডি বন্ধ করা হয়েছে।

Related posts