November 17, 2018

যে কারনে বৃটিশ সরকারকে স্বামীর আটকের খবর জানান তালেয়া

ঢাকায় বৃটিশ হাইকমিশনকে সাংবাদিক শফিক রেহমানের গ্রেফতার হওয়ার খবরটি আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছেন তার স্ত্রী তালেয়া রেহমান। শফিক রেহমান বৃটেনেরও নাগরিক।

সাপ্তাহিক ‘মৌচাকে ঢিল’র সম্পাদক শফিক রেহমানের স্ত্রী তালেহা রেহমানের বরাত দিয়ে সাপ্তাহিকটির সহকারী সম্পাদক সজীব ওনাসিস  এ তথ্য জানিয়েছেন।

রোববার দুপুরে রাজধানীর বারিধারায় বৃটিশ হাইকমিশনে যান তালেয়া রেহমান। সেখানে তিনি হাইকমিশনের পলিটিক্যাল ডিপার্টমেন্টের সঙ্গে কথা বলেন এবং কাউন্সিলরের কাছে শফিক রেহমান গ্রেফতার মামলার কাগজপত্র জমাদেন।জবাবে ব্রিটিশ হাইকমিশন জানিয়েছে, তারাও বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করছেন।

তালেয়া রেহমান জানান, “শফিক রেহমানের গ্রেফতারের খবরটি আমি বৃটিশ সরকারকে জানাতে চাই। এজন্যই ঢাকাস্থ বৃটিশ হাইকমিশনে গিয়েছিলাম। মামলার কাগজপত্রও দিয়েছি। ”

তিনি আরো বলেন, “বৃটিশ নাগরিক হিসেবে শফিক রেহমান রাজনৈতিকভাবে হয়রানির শিকার। গ্রেফতার থাকাকালীন শফিক রেহমানের প্রতি যাতে কোনো ধরনের অন্যায় কিছু করা না হয় সে বিষয়গুলোর বৃটিশ হাইকমিশনকে খোঁজ রাখতে অনুরোধ করেছি।”

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যার পরিকল্পনা মামলায় শনিবার গ্রেপ্তার হওয়া সাংবাদিক শফিক রেহমানের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

এর আগে শনিবার সকালে রাজধানীর ইস্কাটনের নিজ বাসা থেকে শফিক রেহমানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির উপকমিশনার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বলেন, ২০১৫ সালের আগস্ট মাসে রাজধানীর পল্টন থানায় করা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণ ও হত্যা পরিকল্পনা মামলার তদন্ত করছে ডিবি। এতে শফিক রেহমানের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। এ কারণে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Related posts