November 13, 2018

যে কারণে ফেসবুকে বন্ধুত্ব থেকে সাবধান …

কয়েক বছর আগে বিবাহবিচ্ছেদ হয় কুসুমের৷ গত বছর দেরাদুনের একটি ছেলের সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয়েছিল তাঁর৷ তবে অজ্ঞাত কারণে সেই সম্পর্কও ভেঙে যায়৷ এর পরই গত বছর অাগস্ট মাসে গুড়গাঁও থেকে বদলি হয়ে বেঙ্গালুরুতে আসেন কুসুম৷ জুনিয়র কলেজ রোডের একটি আবাসনে নিধি নামে এক বান্ধবীর সঙ্গে থাকতেন তিনি৷ মাস তিনেক আগে হরিয়ানার বাসিন্দা সুখবীর সিংহের সঙ্গে ফেসবুকে আলাপ হয় তাঁর৷ ফোন নম্বর বিনিময়ও হয়৷ এর পরই তাঁরা সিদ্ধান্ত নেন দেখা করবেন৷

ফেসবুকে পাতানো সেই বন্ধুকে মঙ্গলবার নিজের ফ্ল্যাটে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন ভারতের বেঙ্গালুরুর আইবিএম কর্মী ৩১ বছরের কুসুম সিংলা৷ এই বন্ধুত্বের জেরেই খুন হলেন তিনি৷ অ্যাপার্টমেন্টে ফেরার পর প্রথম সিংলার রক্তাক্ত দেহ দেখতে পান তাঁর ফ্ল্যাটমেট৷

মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটা নাগাদ বেঙ্গালুরুর অ্যাপার্টমেন্ট থেকে উদ্ধার হয় সিংলার দেহ৷ বুধবার সকালে হরিয়ানা থেকে এই ঘটনায় অভিযুক্ত সুখবীর সিংকে গ্রেফতার করা হয়।

বৃহস্পতিবার পুলিশ এ খবর জানায় ৷

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জানিয়েছে, ল্যাপটপের তার জাতীয় কিছু দিয়ে শ্বাসরোধ করেই খুন করা হয়েছে কুসুমকে। আঘাত করা হয় ধারালো কোনও অস্ত্র দিয়ে।

পুলিশ জানিয়েছে, গত মঙ্গলবার দুপুরে কুসুমের সঙ্গে দেখা করতে হরিয়ানা থেকে বেঙ্গালুরু আসেন সুখবীর৷ জেরার মুখে কুসুমের ফ্ল্যাটে যাওয়ার কথা স্বীকার করে নেয় সুখবীর৷ জানায়, হরিয়ানায় ফিরে যাওয়ার মূল্য হিসাবে কুসুমের কাছে ৫০ হাজার টাকা চেয়েছিল সে৷ দর কষাকষি করতে করতে পাঁছ হাজার টাকা পর্যন্ত নামে সে৷ কিন্তু সেটাও দিতে রাজি হননি কুসুম৷ এর পরই তাঁকে খুন করে সুখবীর৷

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/মেহেদি/ডেরি

Related posts