November 13, 2018

যুবলীগ পরিচয়ধারী ‘একজনের’ কীর্তি

ডেস্ক রিপোর্টঃঃ বরিশালের গৌরনদীতে মরিয়ম বেগম (৩০) নামে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে জুতাপেটা করেছেন যুবলীগ নেতা পরিচয়দানকারী মাহবুব আলম কুট্টি। ঘটনার তিনদিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি।
তবে পুলিশ বলছে— নারী নির্যাতনের ঘটনায় মামলা হয়েছে। আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
‘আমরা জানতে পেরেছি অভিযুক্ত মাহাবুব আলম কুট্টি চরম বেয়াদব প্রকৃতির লোক। তার অত্যাচারে কিছুদিন আগে তাকে ছেড়ে তার স্ত্রী চলে গেছে।’ বলেন গৌরনদী থানার ওসি আলাউদ্দিন মিলন।
এদিকে হামলার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ায় সর্বত্র ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে। বরিশালের গৌরনদী উপজেলার পৌর এলাকার টরকী বন্দরের এই ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে অভিযুক্ত মাহাবুবকে প্রধান করে অজ্ঞাতনামা আরো তিনজনকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে।
মামলার বাদী প্রবাসী হালিম সরদারের স্ত্রী মরিয়ম বেগম এজাহারে উল্লেখ করেন, যুবলীগ পরিচয়দানকারী নেতা মাহাবুব আলম কুট্টি তার ছোট বোন পপি আক্তারের (১৮) মোবাইল নাম্বারে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে বিভিন্ন ধরনের কু-প্রস্তাব দেয়। এতে পপি রাজি না হওয়ায় ওই যুবলীগ নেতা তাকে বিভিন্ন সময়ে ফোন দিয়ে পপিকে রাজি করার জন্য হুমকি দিতে থাকে।
এজাহারে আরও উল্লেখ রয়েছে, গত ১৫ অক্টোবর বিকেলে তিনি টরকী বন্দরে যাওয়ার সময় স্থানীয় হাইস্কুলের সামনে পৌঁছলে যুবলীগ নেতা মাহাবুব আলম কুট্টিসহ তার ২/৩ জন সহযোগীরা পথরোধ করে। একপর্যায়ে তারা তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ শুরু করলে তিনি তাদের প্রতিবাদ করেন। এতে যুবলীগ নেতা ও তার সহযোগীরা ক্ষিপ্ত হয়ে জনসম্মুখে তাকে জুতাপেটা করে গুরুতর আহত করে এবং শ্লীলতাহানী ঘটিয়ে স্বর্ণের চেইন ছিনিয়ে নেয়। পরবর্তীতে স্থানীয়রা গুরুতর অবস্থায় মরিয়মকে উদ্ধার করে গৌরনদী হাসপাতালে ভর্তি করেন।
হাসপাতালের চিকিৎসায় কিছুটা সুস্থ হয়ে গৃহবধূ মরিয়ম বেগম থানায় মামলা দায়ের করেন (মামলা নং-১২)।
এদিকে যুবলীগ পরিচয়দানকারী এই নেতার হামলার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ায় প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা থেকে শুরু করে সর্বত্র তোলপাড় শুরু হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে অভিযুক্ত মাহবুব যুবলীগের কেউ না। দীর্ঘদিন কমিটি না হওয়ায় তিনি নিজেকে নেতা দাবি করে বসেছেন।
অভিযুক্ত যুবলীগ পরিচয়দানকারী মাহাবুব আলম কুট্টি বলেন, মরিয়ম বেগম আমার বিরুদ্ধে এলাকায় মিথ্যা অপপ্রচার চালায়। বিষয়টি আমি তাকে জিজ্ঞাসা করলে সে আমার ওপর চড়াও হয়।
উৎসঃ poriborton

Related posts