September 19, 2018

যুবলীগ নেতার কান কামড়ে নিয়ে পালালো যুবক

run

পাইকগাছা (খুলনা): পাইকগাছায় শেখ শহীদ হোসেন বাবুল (৫৫) নামে স্থানীয় এক যুবলীগ নেতার কান কেটে দিয়েছে মাদকাসক্ত যুবক। এ সময় কেটে ফেলা কান মুখে ঢুকিয়ে পালিয়ে যায় সে। গুরুতর অবস্থায় ওই নেতাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ আবুল কালাম আজাদ (২২) নামে ওই যুবককে আটক করেছে।

রোববার সকাল ৮টার দিকে উপজেলার গদাইপুরের মুক্তির মোড় নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

আহত শেখ শহীদ হোসেন বাবুল উপজেলার গদাইপুর ইউনিয়নের মেলেক পুরাইকাটি গ্রামের মৃত শেখ শরফুদ্দীনের ছেলে ও উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি।

এলাকাবাসী জানান, রোববার সকালে শেখ শহীদ হোসেন বাবুল আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. নজরুল ইসলাম গাজীর পক্ষে মুক্তির মোড়ে প্রচারণা চালাচ্ছিলেন। বেলা ১১টায় প্রচারণা শেষে যুবলীগ নেতা মোটরসাইকেল নিয়ে ফেরার পথে গদাইপুর গ্রামের কাশেম সরদারের ছেলে আবুল কালাম আজাদ  তার গতিরোধ করেন। এ সময় কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই পকেটে থাকা ছুরি দিয়ে কান কেটে শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেয় ওই যুবক। পরে কাটা কান মুখে ঢুকিয়ে পালিয়ে যায় সে।

পরে স্থানীয় লোকজন আহত যুবলীগ নেতাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি। খবর পেয়ে পাইকগাছা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল মান্নান ফকির অভিযান চালিয়ে আবুল কালাম আজাদকে আটক ও কেটে ফেলা কান উদ্ধার করেন।

এদিকে, এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ কবির উদ্দীন ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি শান্ত করেন।

Related posts