December 13, 2017

যাত্রী নিরাপত্তায় চাঁদপুর-লাকসাম রেল স্টেশন গুলো সিসি ক্যামেরার আওতায়

  ‡‡এ কে আজাদ, চাঁদপুর : বর্তমান সময়ে তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর বিশ্বর সাথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। তাই আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রনে প্রযুক্তির ব্যাবহার শুরু করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। এরই অংশ হিসেবে চাঁদপুর রেলওয়ের বড়স্টেশন থেকে লাকসাম পর্যন্ত ১২ টি রেল স্টেশনের মধ্যে ৬ স্টেশনকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে।

চাঁদপুর থেকে লাকসাম পর্যন্ত মোট ১২ টি স্টেশন রয়েছে এর মধ্যে চাঁদপুর বড়স্টেশন, চাঁদপুর কোর্টস্টেশন, মধুরোড স্টেশন. হাজিগঞ্জ স্টেশন, মেহার রেল স্টেশন, চিতৈষী রেল স্টেশন। এই ৬ টি রেল স্টেশন সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে।
যাত্রীদের নিরাপত্তা এবং রেলওয়ের নিরাপত্তার স্বার্থে চলতি বছরের জুলাই মাস থেকে চাঁদপুর- লাকসাম রেল পথের স্টেশন গুলোতে বাংলাদেশ রলওয়ের সিগনাল এন্ড টেলিকম দপ্তর স্টেশনের প্রকার এবং গুরুত্ব বেদে এই সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়।

চাঁদপুর বড়স্টেশন মাস্টার মোহান্মদ হোসেন মজুমদাদ জানান, রেলওয়ের যাত্রী সাধারন, রেলওয়ের নিজস্ব তথা জনগনের সার্বিক নিরাপত্তা বিধানে বাংলাদেশ রেলওয়ের এই উদ্যোগের সুফল জনগন পেতে শুরু করেছে। কিছু দিন পূর্বে মেহার রেল স্টেশনে একটি মারাসারীর ঘটনা ঘটেছে। রেলওয়ের সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে অপরাধীদের বের করতে পেরেছে পুলিশ। এছাড়া জঙ্গীবাদ, সন্ত্রাস, বিভিন্ন অপরাধীদের সনাক্ত করা অতি সহজ হয়ে গেছে এখন।

III

তিনি আরো বলেন, চাঁদপুর বড় স্টেশনসহ ইতিমধ্যে চাঁদপুর কোর্টস্টেশন, মধুরোড, হাজীগঞ্জ, মেহের, ও চিতশী রেল স্টেশন গুলোতেও সিসি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে। যেসব স্টেশনে এখনো সিসি ক্যামেরা বসানো হয়নি পর্যায়ক্রমে সেগুলোতেও সিসি ক্যামেরা বসানো হবে।

চাঁদপুর রেলওয়ে বড় স্টেশনের স্টেশন হেড বুকিং আব্দুল সালাম সরকার জানান, ‘যাত্রী সাধারণ এবং রেলওয়ের নিরাপত্তার জন্য বাংলাদেশ রেলওয়ের সিগনাল এন্ড টেলিকম দপ্তর কর্তৃপক্ষ প্রত্যেকটি রেলস্টেশনে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করার উদ্যোগ নিয়েছে। পর্যায়ক্রমে চাঁদপুর-লাকসাম লাইনের প্রতিটি রেল স্টেশনকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হবে।

এদিকে রেলওয়েসহ যাত্রী সাধারণের নিরাপত্তার জন্য সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হলেও সার্বক্ষনিক মনিটরিং করার জন্য রেল কতৃপক্ষ এখনো কোন লোকবল নিয়োগ দেন নাই। বর্তমানে এসব সিসি ক্যামেরার মনিটর রেল স্টেশন মাস্টারের কক্ষেই স্থাপন করা হয়েছে। স্ব-স্ব স্টেশন মাস্টারগন তাদের দৈনন্দিন কাজের মাঝেই ক্যামেরার বিষয়টি মনিটরিং করছেন বলে তারা জানিয়েছেন।

এদিকে রেল স্টেশম গুলোতে চুরি ছিনতাইয়ের ঘটনা এবং যাত্রীদের জীবনের নিরাপত্তার জন্য সিসি ক্যামেরা প্রযুক্তির যুগে অনেক বেশি প্রয়োজন বলে মনে করছেন যাত্রীসাধারণরা। যাত্রী নিরাপত্তায় এগুলো বেশ উপকারে আসবে বলে জানান ক’জ যাত্রী।

Related posts